দ্য সুলতান

সায়েন্স

সত্যকে আবিস্কার এবং নির্ণয় করে বিজ্ঞান

এক টুকরো সূর্য!

ঘর থেকে বের হয়ে সকালের মিষ্টি মিষ্টি উষ্ণ সূর্যের আলোটাকে ধরতে ইচ্ছে করে অনেকেরই। সূর্য তো আসলে একটা উত্তপ্ত গ্যাসের পিন্ড, একে ধরা যাবে না আমরা সবাই জানি। কিন্তু গবেষকেরা এবার আসলেই এক টুকরো সূর্য ধরে এনেছেন পৃথিবীতে।আর সূর্যের এই অংশটা আপনি ইচ্ছে করলে হাত দিয়ে ধরতেও পারবেন। মূল ইংরেজি আর্টিকেলটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে…

টেক্সাসের হিউস্টনে আছে জনসন স্পেস সেন্টার। তার দুইটি ক্লিনরুমের মাঝে মেটালিক ওয়েফার এবং ফয়েলে ধরা আছে সৌরঝড়ের কণিকা। পনেরো বছর আছে এসব কণিকা সূর্যের পৃষ্ঠ থেকে মহাকাশে ছুটে চলে এসেছিল সেকেন্ডে ৭৫০ কিলোমিটার বেগে। সাধারণত এরা মহাশূন্যেই বিলীন হয়ে যায়। কিন্তু এক্ষেত্রে এদেরকে ধরার জন্য ওঁত পেতে ছিল নাসার একটি মহাকাশযান। পৃথিবী এবং এবং সূর্যের মাধ্যাকর্ষণ শক্তি যেখানে নেই হয়ে যায়, সেখানে সে ডানা মেলে অপেক্ষা করছিল এসব কণিকা সংগ্রহ করতে।



কিপ রিডিং…

পৃথিবী আকৃতির নতুন ৭ গ্রহের সন্ধান

সৌর জগতের সন্নিকটে একটি নক্ষত্রের চারপাশে ঘূর্ণায়মান পৃথিবীর সমান আকৃতির অন্তত সাতটি গ্রহের সন্ধান পেয়েছেন জ‌্যোতির্বিজ্ঞানীরা। নতুন সাত গ্রহ আবিষ্কারের এই খবর ২২ ফেব্রুয়ারি বুধবার জার্নাল ন্যাচারে প্রকাশিত হয়। পাশাপাশি ওয়াশিংটনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসার সদর দফতরে সংবাদ সম্মেলন করেও এ আবিষ্কারের ঘোষণা দেওয়া হয়।

পৃথিবী থেকে ৪০ আলোকবর্ষ দূরের এসব গ্রহের আকার এবং ভর অনেকটা পৃথিবীর মতো। আর সাতটি গ্রহের মধ্যে তিনটিতে প্রাণের বিকাশে সহায়তাকারী মহাসাগর থাকার উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। গবেষণায় নেতৃত্ব দেওয়া বেলজিয়ামের লিজ বিশ্ববিদ‌্যালয়ের জ‌্যোতির্বিদ মাইকেল গালোন বলেন, এবারই প্রথমবারের মতো একটি নক্ষত্র ঘিরে থাকা এতগুলো গ্রহ পাওয়া গেছে।

গ্রহগুলো যে নক্ষত্রটি ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে, অতি শীতল ক্ষুদ্রাকৃতির ওই নক্ষত্রের নাম দেওয়া হয়েছে টিআরএপিপিআইএসটি-১। ইংরেজি মূল আর্টিকেলটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে…


এই নক্ষত্রকে ঘিরে আবর্তিত গ্রহগুলো শক্ত গঠনের; সেগুলো বৃহস্পতির মতো গ‌্যাসীয় নয়, বরং শিলা দ্বারা গঠিত হতে পারে।


কিপ রিডিং…

গো টু টপ