দ্য সুলতান

ওয়ার্ল্ড

একসঙ্গে সারা বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ সব খবরাখবর

২০২০ সালে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে রোবট!

নিউজিল্যান্ডের উদ্যোক্তা নিক গ্যারিটসেনের উদ্ভাবন ইঙ্গিত দিচ্ছে, অদূর ভবিষ্যতে একসময় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাই এই পৃথিবীকে নিয়ন্ত্রণ করবে। মানুষ পুরোমাত্রায় নির্ভরশীল হয়ে পড়বে এর ওপর। অনেক বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনির সারবস্তু এটাই। কল্পকাহিনি আর কল্পনায় সীমাবদ্ধ থাকবে না। বরং এরাই হবে  ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার রাজনীতিবিদ’।

৪৯ বছর বয়সী নিক গেরিটসেনের উদ্ভাবিত ভার্চ্যুয়াল রাজনীতিবিদ স্থানীয় নানা বিষয়সহ গৃহায়ণ, শিক্ষা ও অভিবাসনের মতো ইস্যুগুলো নিয়ে মানুষের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে। গেরিটসেন এর নাম দিয়েছেন ‘স্যাম (এসএএম)’। তিনি বলেন, বর্তমানে রাজনীতির চর্চায় মতপার্থক্যের মাত্রা অনেক বেশি। তাই জলবায়ু পরিবর্তন ও সমতার মতো জটিল ইস্যুগুলো বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশে সমাধান করা যাচ্ছে না। এ জন্যই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার রাজনীতিবিদ উদ্ভাবন করেছেন তিনি।

গেরিটসেন বলেন, আমি বিশ্বাস করি, বিভিন্ন দেশে যে রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক বিভেদ সৃষ্টি হচ্ছে, তাতে সেতুবন্ধ তৈরি করতে সক্ষম হবে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। গেরিটসেন আশা করছেন, ২০২০ সাল নাগাদ তাঁর এই উদ্ভাবন স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে পারবে। ওই বছর নিউজিল্যান্ডে জাতীয় নির্বাচন। সেই নির্বাচনে স্যাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে বলেও তিনি আশাবাদী।

তিন তালাক দিলে তিন বছর জেল!

এক সাথে তিন তালাক শব্দ উচ্চারণ করে বা তিন তালাক লিখে তাৎক্ষণিকভাবে বিবাহ বিচ্ছেদের বিরুদ্ধে ভারতে আইন করা হচ্ছে। নতুন এই আইন অনুযায়ী, তিন তালাক শব্দ উচ্চারণ করলে বা লিখে পাঠালে বিবাহ বিচ্ছেদ বৈধ হবে না। এই আইনে আরো বলা হচ্ছে, কেউ যদি এমন কাজ করে (তিন তালাক শব্দ উচ্চারণ করে বা লিখে পাঠায়) তাহলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির তিন বছর কারাদণ্ড বা জেল হতে পারে। প্রস্তাবিত এই আইনের খসড়া এখন পরামর্শের জন্য ভারতের রাজ্য সরকারগুলোর কাছে পাঠানো হয়েছে। কারাদণ্ড বা জেলের পাশাপাশি তালাকাপ্রাপ্তা নারীদের প্রাপ্য জরিমানা দেওয়ার বিধানও রাখা হবে এই আইন।


নতুন এই আইনটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘মুসলিম উইমেন প্রোটেকশন অব রাইটস অন ম্যারেজ বিল’।


ভারতের সুপ্রিম কোর্টের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, ‘তিন তালাক দেওয়ার পর যদি কোনো স্বামী তাঁর স্ত্রীকে বাড়ি ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য করে, তাহলে তালাকাপ্রাপ্তা নারী সব ধরনের আইনি সুবিধা পাবে- এমন নির্দেশনা আছে নতুন আইনের খসড়ায়’। তিনি আরো বলেন, ‘এই খসড়া পার্লামেন্টের আগামী শীতকালীন সভায় পাস হওয়ার সম্ভাবনা আছে’। কিপ রিডিং…

বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০ মুসলিম ব্যক্তিত্ব

দ্য ওয়ার্ল্ডস ফাইভ হানড্রেড মোস্ট ইনফ্লুনসিয়াল মুসলিম-জর্ডানের রাজধানী আম্মানে অবস্থিত দ্য রয়েল ইসলামিক স্ট্যাটিজিক স্টাডিজ সেন্টার দ্বারা পরিচালিত একটি আয়োজন। যারা মূলত বিশ্বব্যাপি প্রতিবছর প্রভাশালী মুসলিম ব্যক্তিত্ব নির্বাচনকেন্দ্রিক একটি জরিপ পরিচালনা করে থাকে। এটি একটি সম্পূর্ণ বেসরকারি স্বাধীন গবেষণা সংস্থা। প্রতি বছরের মতো ২০১৭ সালে পরিচালিত জরিপে উঠে এসেছে বিশ্বময় ছড়িয়ে থাকা ৫০০ প্রভাবশালী মুসলিম ব্যক্তিত্বের নাম। ৫০০ প্রভাবশালী মুসলিম ব্যক্তিত্বের নাম নির্বাচন করার পর আরো দুই ধাপে দুটি জরিপ অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম ধাপে সবচেয়ে প্রভাবশালী ৫০ জন ব্যক্তিত্বকে নির্বাচন করা হয় এবং দ্বিতীয় ধাপে সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০জন ব্যক্তিত্বকে নির্বাচন করা হয়। ২০১৭ সালের নির্বাচিত বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্ব কারা নির্বাচিত হয়েছেন? চলুন জেনে নেই বিশ্বের সবেচেয়ে প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের নাম ও সংক্ষিপ্ত পরিচয়।

১. অধ্যাপক ড. শেখ আহমদ মুহাম্মদ আল-তৈয়ব: বিশ্বের সবেচেয় প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকার প্রথমে রয়েছেন তিনি। ২০১৬ সালের জরিপে তিনি দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন। তার দেশ মিশর। জন্ম- ১৯৪৬ সালে। মূলত প্রশাসনিক ক্ষমতার কারণে তিনি প্রভাশালী নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি একজন ঐতিহ্যবাহী সুন্নি মুসলিম। বর্তমানে তিনি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রান্ড শায়খ এবং আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদের গ্রান্ড ইমাম হিসেবে দায়িত্বরত রয়েছেন। এরপূর্বে তিনি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রায় সাত বছর এবং মিশরে সবচেয়ে শক্তিশালী ধর্মীয় নেতা বা গ্র্যান্ড মুফতি হিসাবে দুই বছর দায়িত্ব পালন করেছেন।

২. কিং আবদুল্লাহ (দ্বিতীয়) ইবনে আল হুসাইন: বিশ্বের সবেচেয় প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকার দ্বিতীয় ব্যক্তিত্ব তিনি। ২০১৬ সালের জরিপে তিনি প্রথম ছিলেন। তার দেশ জর্ডান। জন্ম- ১৯৬২ সাল অনুযায়ী বর্তমানে তার বয়স ৫৪ বছর। রাজনীতি এবং ঐতিহ্যবাহী বংশের বিবেচনায় তিনি প্রভাবশালী নির্বাচিত। তিনিও একজন ঐতিহ্যবাহী সুন্নি মুসলিম নেতা। বর্তমানে তিনি জর্ডানের হাশেমাইট কিংডমের রাজা এবং জেরুজালেমের বিভিন্ন অঞ্চলের জিম্মাদার হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। মুসলিম বিশ্বের দুটি বিরাট দ্বন্দ্ব নিরসনে ভূমিকা পালন করার মাধ্যমে কিং আবদুল্লাহ (দ্বিতীয়) বিশ্বব্যাপী পরিচিতি অর্জন করতে সক্ষম হন।

৩. কিং সালমান বিন আবদুল আজিজ কিন আল সৌদ: বিশ্বের সবেচেয় প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকার তৃতীয় স্থান অধিকার করে আছেন তিনি। ২০১৬ সালের জরিপেও তিনি তৃতীয় স্থানে ছিলেন। তার দেশ সৌদি আরব। জন্ম- ৩১ ডিসেম্বর ১৯৩৫ মোতাবেক তার বয়স ৮০ বছর। রাজনৈতিক ক্ষমতার বিবেচনায় তিনি প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। কিং সালমান বিন আবদুল আজিজ মর্ডারেট সালাফি মুসলিম নেতা। বর্তমানে তিনি রয়েল সৌদি আরবের বাদশাহ এবং সৌদি আরবে অবস্থিত পবিত্র দুই মসজিদের জিম্মাদার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তিনি এই পদে আসীন হন। এর পূর্বে তিনি ক্রাউন প্রিন্স হিসেবে সৌদি সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। কিপ রিডিং…

ফটোগ্রাফার ওবামা!


যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা যখন স্ত্রী মিশেল ওবামার ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার। ছবি: এএফপি


বারাক ওবামা সাবেক প্রেসিডেন্টের খাতায় নাম লিখিয়েছেন তিন মাস হতে চলল। সেই থেকে মোটামুটি আড়ালেই আছেন তিনি ও সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা। আড়ালে থেকে সময়টা যে তাঁরা বেশ ভালোই কাটাচ্ছেন, বিভিন্ন সময় প্রকাশিত ছবি সে কথাই বলছে। সর্বশেষ তাঁদের একটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে। যথারীতি সেটিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

টুইটারে ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, বেশ আবেদনময়ীর সাজে সেজেছেন মিশেল। কালো টপস আর সাদা মিনি স্কার্ট। জাহাজের ডেকে দাঁড়িয়ে থাকা মিশেলের চুলগুলো উড়ছে আউলা বাতাসে। আর তাঁকে এ অবস্থায় ক্যামেরাবন্দী করার কাজটি করে যাচ্ছেন একজন। তিনি আর কেউ নন, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। কিপ রিডিং…

তুরস্ক-ইউরোপ সম্পর্কে ফাটল!

তুরস্কের এক মন্ত্রীর নেদারল্যান্ড সফর নিষিদ্ধ করার ঘটনায় দেশটির প্রতি ক্ষুব্ধ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। তিনি বলেছেন, এই ঘটনার জন্য নেদারল্যান্ডকে কঠিন মূল্য দিতে হবে। বেশ কিছুদিন ধরেই তুরস্ক ও ইউরোপীয় কয়েকটি দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যার ফলে জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, অস্ট্রিয়ার সঙ্গে তুরস্কের সৃষ্টি হয়েছে মারাত্মক কূটনৈতিক সঙ্কট। দেশগুলোর নেতাদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হচ্ছে । সৃষ্ট উত্তেজনা নিরসনের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কালুসোগলুকে বহনকারী বিমান নেদারল্যান্ডে অবতরণের অনুমতি না দেয়ায় এ উত্তেজনার সূচনা। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি ও দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। কিপ রিডিং…

সবুজাভ চীনা শহর!

গাছ-পালায় আবৃত আকাশচুম্বী অট্টালিকার নকশার উদ্ভাবনে বিখ্যাত হয়েছেন স্থপতি স্টিফানো বোয়েরি। বিষাক্ত বাতাসে অসহায় চীনা জাতির ভাগ্যোন্নয়নে সম্পূর্ণ নতুন নমুনায় সবুজ শহর গড়ে তোলার নকশা করেছেন তিনি।

স্টিফানো বোয়েরি সবুজাভ চীনা শহরের স্বপ্ন দেখেন। ওইসব চীনা শহরের বাসা-বাড়ি, হোটেল এবং ব্লকগুলো গাছ-পালা এবং গুল্মজাতীয় উদ্ভিদের আয়োজনে আপাদমস্তক জ্বলজ্বল করবে। আর এভাবেই চীনের শহরাঞ্চলে বিদ্যমান বিষাক্ত ধোঁয়া-ধুলার পরিবর্তে তাজা বাতাসে শ্বাস নেওয়া সম্ভব হবে।

গাছা-পালাযুক্ত আকাশচুম্বী দালানের নকশার জন্য বিখ্যাত ইতালির এই স্থপতি গত সপ্তাহে মিলান শহরে চীনের জন্য এরকম একটি প্রকল্প হাজির করেন। চীনের পূর্বাঞ্চলের নানজিং শহরের জন্য এ প্রকল্পটি তৈরি করা হয়েছে। কিপ রিডিং…

ইসলামের রীতিনীতি আমাকে মুগ্ধ করেছে : লিন্ডসে লোহান


লোহান ডেইলিমেইলকে বলেন, ‘আমি বেশ কিছু দিন ধরে কোরআন নিয়ে গবেষণা করেছি। এখন আমার ধর্মান্তের একটা প্রক্রিয়া চলছে। সব ধর্মের প্রতি আমার সম্মান রয়েছে… । ইসলাম একটি সুন্দর ধর্ম এবং আমি একজন অত্যন্ত ধর্মপরায়ণ ব্যক্তি। আমার কাছে ইসলাম এমন কিছু যা আমি অনেকদিন ধরেই খুঁজছিলাম।’ 


হলিউডের বিখ্যাত অভিনেত্রী লিন্ডসে লোহান সম্প্রতি তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামের অ্যাকাউন্ট থেকে নিজের জীবন বৃত্তান্ত মুছে দিয়ে সেখানে ‘আলাইকুম সালাম’ বার্তা পোস্ট করেছিলেন। তার এই বার্তা প্রকাশের পরই চারদিকে চলছে নানা কানাঘুষা, আন্তর্জাতিক সংবাদের শিরোনামও হয়েছে। সেইসঙ্গে জল্পনা-কল্পনা চলছে যে, তিনি ইসলামে ধর্মান্তরিত হয়েছেন এবং তা অনেকের মাঝেই ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।  এমন একটি পরিস্থিতিতে লোহান তার নীরবতা ভাঙলেন। প্রকৃতপক্ষে তিনি শুধু ইসলাম নিয়েই মুখ খোলেন নি, একই সঙ্গে এটিকে স্বাগতও জানিয়েছেন।

কিপ রিডিং…

পুড়িয়ে দেয়া হলো টেক্সাসের একটি মসজিদ


আমেরিকার নব্য প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসীন হওয়ার দশদিনের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে একটি মসজিদে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।  আগুনে মসজিদটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। ২৯ জানুয়ারি শনিবার ভোরে ‘দ্য ইসলামিক সেন্টার অব ভিক্টোরিয়া’ নামের মসজিদটিতে আগুন দেয়া হয়। খবর এপি,আরটি, নিউইয়র্ক টাইমস। গত শুক্রবার সিরিয়াসহ সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার এই আদেশ জারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই টেক্সাসের মসজিদটিতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটল।
কিপ রিডিং…

ট্রাম্প হুইস্কি!

এক বোতল ট্রাম্প হুইস্কি নিলামে প্রায় ৬ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে। ২০১২ সালে একটি অনুষ্ঠান উপলক্ষে ২৬ বছরের পুরনো গ্লেনড্রোনাক হুইস্কি বোতলজাত করা হয়।

উচ্চমূল্যের এই হুইস্কির বোতলের মোড়কে ডোনাল্ড ট্রাম্প স্বাক্ষর করেন। যুক্তরাজ্যের স্কটল্যান্ডের অ্যাবারডেনশায়ারে ট্রাম্প গলফ ইন্টারন্যাশনালের উদ্বোধনীতে অতিথিদের দেয়া হয় এ হুইস্কি। তখন থেকে এটি ট্রাম্প হুইস্কি নামে পরিচিত।

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোয় শুক্রবার নিলামে কানাডার এক ক্রেতা প্রত্যাশিত মূল্যের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ দামে কিনে নিয়েছেন বিরল এই হুইস্কির বোতল।

‘ওবামাকেয়ার’ বাঁচানোর শেষ চেষ্টা

ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় এসে যাতে তাঁর আলোচিত স্বাস্থ্যনীতি বাতিল করতে না পারেন, সে জন্য শেষ চেষ্টায় নেমেছেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এ বিষয়ে করণীয় ঠিক করতে দলীয় আইনপ্রণেতাদের গতকাল বুধবার এক বৈঠক ডাকেন তিনি।
‘ওবামাকেয়ার’ নামে পরিচিতি পাওয়া স্বাস্থ্যনীতি বারাক ওবামা সরকারের অন্যতম প্রধান ‘অর্জন’।
হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জশ আর্নেস্ট বলেন, প্রেসিডেন্ট ওবামা সিনেট ও প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট সদস্যদের সঙ্গে কৌশল নিয়ে আলোচনা করবেন।
‘ওবামাকেয়ার’ ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় এসেই বাতিল করে দিতে পারেন। ট্রাম্প নিজে ও তাঁর রানিং মেট হবু ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স স্পষ্টভাবেই সে কথা বলেছেন।
হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জশ আর্নেস্ট গতকাল বলেন, বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ওবামা সিনেট ও প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে মূলত ‘অ্যাফোর্ডেবল কেয়ার অ্যাক্ট’ নামের এ স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি বাতিলে রিপাবলিকানদের উদ্যোগ ঠেকাতে কী করা যায়, তা নিয়ে আলোচনা করবেন।
এর আগে গত মঙ্গলবার হবু ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত মাইক পেন্স বলেন, ‘আমরা ওবামাকেয়ার বাতিল এবং এর বদলে অন্য কিছু আনার কথা ভাবছি।’ কিপ রিডিং…

গো টু টপ