Daily archive

January 13, 2017

সৌদিতে ২৪ ঘণ্টায় বিজনেস ভিসা

অথোর- টপিক- কর্পোরেট/ডিপ্লোমেসি/হাইলাইটস

বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য নতুন পদ্ধতি চালু করেছে সৌদি আরব সরকার। মাত্র একদিন অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই দেশটি বিদেশি ব্যবসায়ী বা ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের জন্য বিজনেস ভিসা দেবে। সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা উসামা নুগালি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বলে আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। প্রতিবেদন বলা হয়েছে, একদিনের মধ্যে বিদেশিদের বিজনেস ভিসার ব্যবস্থা করতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। নতুন এই ভিসার আবেদন প্রক্রিয়া চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে। কিপ রিডিং…

শচিন-গিলক্রিস্ট = সাকিব-মুশফিক

অথোর- টপিক- অন-গ্যালারি/স্পোর্টস

বৃষ্টির সঙ্গে ছিলো নিউজিল্যান্ডের পেসারদের আক্রমণও। ৪০.২ ওভার ব্যাটিং করলেও প্রথম দিনটা ভালো যায়নি বাংলাদেশের। ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে স্বাগতিকদের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে ১৫৪ রান তুলতে তিন উইকেট হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ। কিন্তু দ্বিতীয় দিনে অন্য গল্প। যেখানে রাজত্ব করলেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম।

মুশফিক ১৫৯ রান করে থামলেও সাকিব তার ইনিংস নিয়ে গেছেন ২১৭ পর্যন্ত। আর এই ইনিংস সাকিব ও মুশফিককে বসিয়ে দিয়েছে ইয়ান বোথাম, গ্রেগ চ্যাপেল, কুমার সাঙ্গাকারা, শচিন টেন্ডুলকার, অ্যাডাম গিলক্রিস্টদের মতো কিংবদন্তী ক্রিকেটারদের পাশে। সেঞ্চুরি করায় শচিন-গিলক্রিস্টদের মতো ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভের অনার্স বোর্ডে নাম উঠেছে সাকিব ও মুশফিকের।

ইংল্যান্ডের ঐতিহাসিক ক্রিকেট ভেন্যু লর্ডসে এমন রীতি আছে। বিদেশি কোনো ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি করলে তাদের নাম অনার্স বোর্ডে খোদাই করে লেখা হয়। ১৯৩২ সাল থেকে বেসিন রিজার্ভেও এমন রীতি চালু হয়। সাকিব-মুশফিকদের নাম ওঠা এই অনার্স বোর্ডে চ্যাপেল, বোথাম, শচিন, গিলক্রিস্ট, সাঙ্গাকারা ছাড়াও নাম রয়েছে স্টিভ ওয়াহ, আজহারউদ্দিন, হার্শেল গিবস, সাঈদ আনোয়ার, ইনজামাম উল হকসহ আরও অনেকের। এই তালিকার প্রথম নামটি ১৯৩২ সালে সেঞ্চুরি করা দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান জেন বালাসকাসের।



কিপ রিডিং…

ইউরোপের পিরামিড

অথোর- টপিক- ট্রাভেল

পিরামিডের কথা বললেই প্রথমে মাথায় যে নামটি আসে সেটা হল মিশর! কিন্তু এবার যে পিরামিডের কথা বলব সেটা মিশরে নয়, বরং নেদারল্যান্ডে অবস্থিত। ইউরোপের একমাত্র এই পিরামিডটির নাম পিরামিড অব অসটারলিটজ। নেদারল্যান্ডের ওউডেনবার্গ গ্রামের উটরেচ সেতুবন্ধের সবচাইতে উঁচু স্থানে এই ৩৬ মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট পিরামিডটিকে প্রথম নির্মান করেন নেপোলিয়নের সৈনিকরা। সে আজ থেকে অনেক আগের কথা। ১৮০৪ সালে জেনারেল মারমন্ট নেপোলিয়ানকে খুশি করতে আর বন্ধুকে উৎসর্গ করতে নেপোলিয়নের সৈনিকদের দ্বারা নির্মান করেন এই বিশাল মাটির পিরামিড। নিশ্চয়ই ভাবছেন এতকিছু থাকতে পিরামিড কেন? আর এই পিরামিড তৈরির চিন্তা আসলোই বা কীভাবে মারমন্টের মাথায়? কিপ রিডিং…

বিপ্লবী বীর মাস্টারদা সূর্য সেন

অথোর- টপিক- মেমোরিয়াল//সুলতান স্টোরি

বাঙলার নির্যাতিত মানুষের হৃদয়ে মাস্টারদা সূর্য সেন এক অনন্য সাহসী বিপ্লবী নেতা হিসেবে আসন গড়ে আছেন।তার বিপ্লবী আত্মার ত্যাগে সৃষ্টি হয়েছিল এক সোনালী স্বাধীনতার স্বপ্ন।


১৪ নভেম্বর ১৯৩৩ সালে হাইকোর্ট প্রদত্ত রায়ে স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের দেয়া দন্ড বহাল রাখে। ১৯৩৪ সালের ১২ জানুয়ারি মধ্যরাতে সূর্য সেন ও তারকেশ্বর দস্তিদারের ফাঁসি কার্যকর করা হয়।


বৃটিশবিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের বীর নায়ক বিপ্লবী সূর্য সেন ফাঁসির মঞ্চে ওঠার আগে সঙ্গীদের উদ্দেশে লিখে যান, ‘আমি তোমাদের জন্য রেখে গেলাম মাত্র একটি জিনিস, তা হলো আমার এটি সোনালি স্বপ্ন। স্বাধীনতার স্বপ্ন। প্রিয় কমরেডস, এগিয়ে চলো। কিপ রিডিং…

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু

অথোর- টপিক- অ্যাডভাইস/বিলিভারস

টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে তাবলীগ জামাতের সর্ববৃহৎ জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু হয়েছে। শুক্রবার বাদ ফজর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় এ বিশ্ব ইজতেমা। রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হবে। এরপর চার দিন বিরতি দিয়ে ২০ জানুয়ারি শুরু হবে দ্বিতীয় পর্ব। ২২ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তা শেষ হবে। প্রথম পর্বে ২৭টি খিত্তায় অবস্থান নেবেন ১৭ জেলার মুসল্লিরা। খিত্তাগুলো হলো ঢাকার জন্য (খিত্তা ১ থেকে ৫), টাঙ্গাইল (৬, ৭ ও ৮), ময়মনসিংহ (৯, ১০ ও ১১), মৌলভীবাজার (১২), ব্রাহ্মণবাড়িয়া (১৩), মানিকগঞ্জ (১৪), জয়পুরহাট (১৫), চাঁপাইনবাবগঞ্জ (১৬)। রংপুর (১৭), গাজীপুর (১৮ ও ১৯), রাঙামাটি (২০), খাগড়াছড়ি (২১), বান্দরবান (২২), গোপালগঞ্জ (২৩), শরীয়তপুর (২৪), সাতক্ষীরা (২৫) ও যশোর (২৬ ও ২৭)।

ইজতেমায় অস্থায়ীভাবে খুঁটি স্থাপনের মাধ্যমে চারশ বৈদ্যুতিক বাতির ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে যোগাযোগ স্থাপনের লক্ষে ছয়টি টেলিফোন লাইন ও কয়েকটি হট লাইন স্থাপন, বিনামূল্যে চিকিৎসার জন্য নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সামনে ৫৪টি চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র এবং হামদর্দের একটি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। এদিকে, ইজতেমা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পৃথক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ স্থাপন করেছে গাজীপুর সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও ভিডিপি। নিরাপত্তার জন্য তুরাগ নদীতে টঙ্গী ব্রিজ ও কামারপাড়া ব্রিজের নিচে দুই পাশে বাঁশ দিয়ে দুইটি বেষ্টনী নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়াও রয়েছে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরাসহ র‌্যাবের নয়টি ও পুলিশের পাঁচটিসহ মোট ১৪টি ওয়াচ টাওয়ার। ইজতেমায় যাতায়াতকারী মুসল্লিদের জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। ট্রেনগুলো ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি ঢাকা-টঙ্গী, জামালপুর-টঙ্গী, লাকসাম-টঙ্গী, আখাউড়া-টঙ্গী, ময়মনসিংহ-টঙ্গী রুটে চলাচল করবে।



কিপ রিডিং…

গো টু টপ