Monthly archive

February 2017

বিনাযুদ্ধে বাংলা ভাষাকে গ্রাস করেছে হিন্দি : আব্দুল গাফফার চৌধুরী

অথোর- টপিক- ইমিগ্র্যান্ট/লিড স্টোরি

ভাষা আন্দোলনে উর্দুর বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হলেও ‘বিনাযুদ্ধে হিন্দি ভাষা বাংলা’কে গ্রাস করে নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন একুশের গানের রচয়িতা ও কলামনিস্ট আব্দুল গাফফার চৌধুরী। সম্প্রতি ঢাকার একটি বিয়েতে উপস্থিত হয়ে যে অভিজ্ঞতা হয়েছে তার উদাহরণ টেনে গাফফার চৌধুরী বলেন, “সেই বিয়েতে গিয়ে আমার মনে হয়েছে মুম্বাই শহরে আছি। একটি বাংলা গানও সেখানে শুনিনি।”


রোববার লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত ভাষা শহীদ দিবসের আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, “ভাষা আন্দোলনে আমরা উর্দুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলাম কিন্তু বাংলাদেশে এখন বিনাযুদ্ধে হিন্দি ভাষা আমাদের গ্রাস করে নিয়েছে। “ইংরেজী শব্দের সাথে বাংলা ভাষায় ঢুকছে হিন্দি শব্দও। বাংলা ভাষাকে সরকারি ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে, কিন্তু কোথাও এই ভাষার ব্যবহার নেই। এই ভাষার ব্যবহার আছে টেলিভিশনে ও সাংবাদপত্রে।”

এটি একটি মনে রাখার মতো ঘটনা বলে উল্লেখ করে ভাষাসৈনিক গাফফার চৌধুরী বলেন, “যে বাংলাদেশ ২৪ বছর উর্দু ভাষার সাম্রাজ্যবাদী আক্রমণের বিরুদ্ধে লড়েছে, তারা বিনা যুদ্ধে হিন্দি ভাষার কাছে আত্মসমর্পণ করেছে, সম্পূর্ণ চলনে বলনে।” প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের। কিপ রিডিং…

ঘরে ঘরে বোমা আতঙ্ক!

অথোর- টপিক- লিড স্টোরি/লিভিং

নিম্ন, মানহীন ও মেয়াদোত্তীর্ণ ফ্রিজ, এসি ও গ্যাস সিলিন্ডর ব্যবহার করায় প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। ত্রুটিপূর্ণ পণ্য মানেই ঝুঁকিপূর্ণ। কম দামে নিম্নমানের পণ্য কিনে ব্যবহার করায় নিজেদের বিপদ নিজেরাই ডেকে আনছে।


আলী আজম : ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে নিম্নমানের ফ্রিজ, এসি ও গ্যাস সিলিন্ডার। মানহীন ও নিম্নমানের একেকটি সিলিন্ডার একেকটি বোমায় রূপ নিয়েছে; যা নিমিষেই ধ্বংস করতে পারে বাসাবাড়ি, দোকানপাট, অফিস-আদালত, যানবাহনসহ বিভিন্ন স্থাপনা। এসব পণ্য মানুষের জীবনের জন্য আতঙ্ক হয়ে উঠেছে। এমনসব সিলিন্ডার ব্যবহারে প্রায় প্রতিদিনই দুর্ঘটনা ঘটছে। বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এসব নিম্নমানের সিলিন্ডার ছেড়ে মানসম্মত সিলিন্ডার ব্যবহার করলে দুর্ঘটনা অনেক কমে আসবে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সিএনজি সিলিন্ডারে প্রতি বর্গইঞ্চিতে ৩২০০ পাউন্ড চাপে গ্যাস ভরা হয়। গ্যাস সিলিন্ডার সঠিক মানের না হলে যে কোনো সময় গাড়ি ভয়াবহ বোমা হয়ে বিস্ফোরণ ঘটার আশঙ্কা থাকে। এদিকে গৃহস্থালি বা দোকানের কাজে ব্যবহূত বেশকিছু এলপিজি সিলিন্ডারও বিস্ফোরণ ঘটছে। নিম্ন ও মানহীন সিলিন্ডার ব্যবহার করায় নিরাপদ রান্নাঘর হয়ে উঠেছে বিপজ্জনক।

জানা গেছে, রি-টেস্টের মেয়াদোত্তীর্ণ দেড় লাখেরও বেশি গাড়ি বিপজ্জনক সিলিন্ডার নিয়ে রাস্তায় চলছে। নিম্নমানের সিলিন্ডার ও কিটস ব্যবহার এবং পাঁচ বছর পরপর রি-টেস্ট করার নিয়ম না মেনে গাড়িচালকরা জীবন্ত বোমা নিয়ে যানবাহন চালাচ্ছেন। যা চালকসহ গাড়ির যাত্রী ও পথচারীদের জীবনের জন্যও হুমকি। প্রায়ই ঘটছে সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনা। এসব দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনাও ঘটছে। সর্বশেষ শনিবার বিকালে পুরান ঢাকার লালবাগ চৌরাস্তায় মিঠাই নামের একটি বেকারিতে ফ্রিজের কমপ্রেসার বিস্ফোরণ ঘটে। এতে সাতজন দগ্ধসহ নয়জন আহত হন। এর মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। কিপ রিডিং…

লাইফস্টাইল অ্যাপ ফানডেলের যাত্রা শুরু

অথোর- টপিক- গেমস-অ্যাপস

জীবনকে সহজ করতে বাংলাদেশে চালু করা হলো ‘ফানডেল’ (fundle) নামে একটি লাইফস্টাইলভিত্তিক অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ। অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য উন্মুক্ত করা ওই অ্যাপে জীবনযাপনভিত্তিক বিভিন্ন মজার ফিচার থাকবে। বিভিন্ন পণ্যের ওপর মূল্যছাড় অফারও থাকবে। এই অ্যাপটি ব্যবহারের ফলে ব্যবহারকারীরা পয়েন্ট পাবেন এবং ওই পয়েন্টের মাধ্যমে মোবাইল রিচার্জসহ বিভিন্ন ধরনের সুবিধা উপভোগ করা যাবে। অ্যাপটি ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। প্লে স্টোর থেকে এটি বিনামূল্যে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে।

কিপ রিডিং…

আবার রমরমা এমএলএম ব্যবসা

অথোর- টপিক- করাপশন/হাইলাইটস

সাঈদুর রহমান রিমন : গ্রাহকদের প্রায় সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারক মাল্টি লেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) প্রতিষ্ঠান ‘আইসিএল গ্রুপ’ও অবশেষে উধাও হয়ে গেল। পুরানা পল্টনের দেওয়ান কমপ্লেক্সে আইডিয়েল কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা সব গা ঢাকা দিয়েছেন। বিজয়নগরের টেপা কমপ্লেক্সে আইসিএল গ্রুপের অফিসে ঝুলছে তালা। অন্যান্য স্থানের ৩৪টি শাখা কার্যালয়ও বন্ধ হয়ে গেছে। অভিযোগ উঠেছে, সংস্থাটির কর্ণধার এম এন এইচ শফিকুর রহমান ও তার সহযোগীরা এরই মধ্যে শক্তিমানদের ছত্রচ্ছায়ায় বহাল তবিয়তেই টিকে রয়েছেন। কিন্তু এর আগেই আইসিএল গ্রুপের অধিকাংশ অর্থ হুন্ডির মাধ্যমে মালয়েশিয়ায় পাচারে সক্ষম হন তারা। প্রতারক চক্রটির মূল হোতারা সেখানেই গড়ে তুলেছেন নিজেদের সেকেন্ড হোম।

শুধু আইসিএল নয়, গত কয়েক মাসে একইভাবে গ্রাহকদের শত শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রায় দুই ডজন ‘এমএলএম প্রতারক’ কোম্পানি গা ঢাকা দেয়। তারা হুন্ডির মাধ্যমে অন্তত ১৫ হাজার কোটি টাকা পাচার করে সপরিবারে নিজেরাও পাড়ি জমিয়েছে বিদেশে। হাজার হাজার অসহায় মানুষকে নিঃস্ব করে লুটে নেওয়া টাকায় প্রতারকরা গড়ে তুলেছেন নিরাপদ আবাস, অভিজাত জীবন। আরও অর্ধশতাধিক এমএলএম প্রতারক টাকা পাচার ও দেশত্যাগের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। গোয়েন্দা সংস্থার তৈরি ‘দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা’র তালিকা বিভিন্ন স্থানে পাঠিয়েও প্রতারকদের বিদেশ পালানো বন্ধ করা যাচ্ছে না। থামানো যাচ্ছে না এমএলএম নামের ভুঁইফোড় হায় হায় কোম্পানিগুলোর প্রতারণা-জালিয়াতি।

ইউনিপেটুইউ, ডেসটিনি-২০০০, ইউনিগেটটুইউসহ শতাধিক এমএলএম কোম্পানির বিরুদ্ধে সরকার কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার সময়ও আইসিএল থাকে ধরাছোঁয়ার বাইরে। বাংলাদেশ ব্যাংকের নানা বাধা-নিষেধের মধ্যেই আইসিএল ব্যাপক তৎপরতা চালিয়ে প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা আমানত সংগ্রহে সক্ষম হয়। প্রতারণা প্রতিষ্ঠান আইসিএলের মাত্র ৫০০ কোটি টাকার সম্পদ দৃশ্যমান থাকলেও বাকি সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকার হদিস পাচ্ছেন না গ্রাহকরা। ঢাকা, কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আইসিএলের জমি ও সম্পদের বেশির ভাগই গোপনে বিক্রি করে টাকা পাচার করা হয়েছে মালয়েশিয়ায়। রাজধানীর বাড্ডা, যাত্রাবাড়ী, কুমিল্লার মিঞাবাজার, ধনিজকরা, চৌদ্দগ্রামসহ অন্যান্য স্থানে থাকা আইসিএলের বাকি সম্পদও বিক্রির পাঁয়তারা চলছে। এভাবেই সাধারণ মানুষের কষ্টে জমানো আমানত লুটে নিয়ে সংঘবদ্ধ প্রতারকরা রাতারাতি উধাও হয়ে যাচ্ছে। প্রতারক চক্র অবাধে কোটি কোটি টাকা লুটে নেওয়ার পরই কেবল হইচই হয়, চলে নানা ভঙ্গিমায় তদন্ত। একপর্যায়ে সবকিছুই চাপা পড়ে যায়। কিন্তু প্রভাবশালী এসব লুটেরা প্রতারক বরাবরই থেকে যায় বহাল তবিয়তে। শুধু থামে না সর্বস্ব হারানো লোকজনের হাহাকার, কষ্টকান্না।


অতিসম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকেও এমএলএম প্রতারণার ব্যাপারে জরুরিভাবে বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু এসব সিদ্ধান্ত, সুপারিশ, বিশেষ নির্দেশনা কোনো কিছুই কার্যকর হচ্ছে না। ফলে বন্ধ হচ্ছে না এমএলএম প্রতারণা, কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা লুটে নেওয়ার বাণিজ্য।


কিপ রিডিং…

বিষ্ণুপ্রিয়া : একটি প্রেমবতী ভাষার আখ্যান

অথোর- টপিক- অপিনিয়ন/লিড স্টোরি

আরেকটি বিষয় স্পষ্ট হলো— বিষ্ণুপ্রিয়া আদতে ছিলো বিষ্ণুপুরীয়া । অর্থাৎ ভারতের মণিপুর রাজ্যের বিষ্ণুপুর থেকে উদ্ভূৎ শব্দটি; যেখানে বিষ্ণুপ্রিয়ারা সংখ্যায় প্রবল ছিলো । বিষ্ণুপ্রিয়ার সুদেষ্ণা সিংহকে দুনিয়ার পয়লা আদিবাসী ভাষাশহিদ বলা হয় । ১৬ মার্চকে বিষ্ণুপ্রিয়া ভাষার ‘মাতৃভাষা দিবস’ হিসেবে পালন করা হয়।


বিষ্ণুপ্রিয়া— কী চমৎকার একটি ভাষার নাম । বুকে আগলে রাখা প্রেয়সীর মতো সুন্দর । লেখার শুরুতে আপনাদের আরও চমৎকার দুটি তথ্য দিচ্ছি—

এক. বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের বর্তমান প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা মণিপুরি সম্প্রদায়ের মানুষ । তার মাতৃভাষা বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি । [1] দুই. পৃথিবীর ইতিহাসে কেবল দুটি ভাষার জন্যে মানুষকে লড়াই করতে হয়েছে রক্ত দিয়ে— বাংলা ও বিষ্ণুপ্রিয়া । এ ছাড়া তামিল ও কন্নাড়া ভাষাসহ আরও কয়েকটি ভাষার জন্যে লড়াই করতে হয়েছে মানুষকে । কিন্তু রক্ত দেয়ার কৃতিত্ব কেবল এ দুটিরই । বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরিদের তাদের মাতৃভাষার স্বীকৃতির জন্য যে কঠিন সংগ্রাম করতে হয়েছে, সে-সংগ্রাম বাংলাভাষা আন্দোলনের চেয়েও দীর্ঘতর । আমরা সে-আলোচনায় একটু পরে আসবো । কিপ রিডিং…

ইসলামি ব্যাংকিং শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

অথোর- টপিক- ব্যাংক-ইনস্যুরেন্স

প্রশিক্ষণার্থী হিসেবে ইসলামিক ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের বিভিন্ন বিভাগে দায়িত্বরত মোট ২২জন নির্বাহী কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন। দিনব্যাপি কর্মশালাটি প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণের মাধ্যমে শেষ হয়।


সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ ও ইসলামিক ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত দিনব্যাপী “ইসলামী ব্যাংকিং” শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ডের সেক্রেটারি জেনারেল জনাব একিউএম ছফিউল্লাহ্ আরিফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের প্রধান শাখার ব্যবস্থাপক ও এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাব মারুফ মনসুর। প্রধান প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা ব্যাংক, দি সিটি ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, এবি ব্যাংক লিমিটেড ও আইএফআইএল-এর শরীআহ্ সুপারভাইজরি কমিটির চেয়ারম্যান এবং সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ড নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব এম আযীযুল হক। প্রশিক্ষণার্থী হিসেবে ইসলামিক ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের বিভিন্ন বিভাগে দায়িত্বরত মোট ২২জন নির্বাহী কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে ইসলামিক ফাইন্যান্স ও ব্যাংকিংয়ের সাফল্য তুলে ধরে বলেন, ইসলামী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ সুদমুক্ত আর্থিক কার্যক্রম প্রবর্তনের মাধ্যমে সমাজকে সুদের কুফল থেকে মুক্ত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, সমাজের অর্থনৈতিক বৈষম্য, দুর্নীতি -এ সবের মূলে রয়েছে সুদভিত্তিক অর্থব্যবস্থা। ইসলামী অর্থনৈতিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নের মাধ্যমেই এই বৈষম্য ও অস্থিরতা দূর করা সম্ভব। কিপ রিডিং…

স্কলারশিপ নিয়ে জাপানে উচ্চশিক্ষার সুযোগ নিন

অথোর- টপিক- এডু-নিউজ

বাংলাদেশের বন্ধুরাষ্ট্র জাপান সরকারের অর্থায়নে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। প্রতিবছর জাপানে সরকারিভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়ে থাকে। ১৯৫৪ সাল থেকে জাপান সরকারের এই বৃত্তি চালু হয়। বর্তমানে জাপানে ওই বৃত্তির অধীনে দশ হাজারের মত বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী বিভিন্ন কোর্সে পড়াশোনা করছে। ২০১৭ সনের জন্য স্কলারশিপের ঘোষণা করা হয়েছে।

যোগ্যতা : বাংলাদেশের Bachelor/Master Degree (or MBBS degree) পাশ করা শিক্ষার্থীরা মাস্টার্স এবং পিএইচডির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে অবশ্যই জাপানি ভাষা জানতে হবে। এছাড়া টোফেল, আইইএলটিএস, জিআরই না থাকলেও আবেদন করা যাবে। তবে কিছু কিছু বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজি সার্টিফিকেট প্রদান করতে হয়।


এই স্কলারশিপের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে চাইলে এবং আবেদন করতে চাইলে ক্লিক করুন : http://www.mext.go.jp/en/ অথবা http://www.studyjapan.go.jp/en/


কিপ রিডিং…

শব্দে শব্দে দীন শেখা : আকিদা

অথোর- টপিক- বিলিভারস/হাইলাইটস

ইসলামি পরিভাষায় আকিদা বলা হয় নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের ওপর বিশ্বাস স্থাপন কর। সুতরাং ইসলামি আকিদা বরতে এমন কিছু বিষয়ের ওপর বিশ্বাস করাকে বুঝায় যার কারণে ঐ ব্যক্তিকে মুমিন বিচিত করা হয়।


মাওলানা মিরাজ রহমান : ধর্মবিশ্বাস বিষয়ক প্রসিদ্ধতম পরিভাষা ‘আকিদা’। হিজরি চতুর্থ শতকের আগে এ শব্দটির প্রয়োগ তত প্রসিদ্ধ ছিলো না। চতুর্থ হিজরি শতক থেকে এ পরিভাষাটি প্রচলন লাভ করে।

আকিদার শাব্দিক পরিচয় : আকিদা শব্দটি আরবি শব্দ। ‘আক্দ’ মূলধাতু থেকে গৃহীত। এর অর্থ বন্ধন করা, গিরা দেওয়া, চুক্তি করা, শক্ত হওয়া ইত্যাদি। ভাষাবিদ ইবনু ফারিস এ শব্দের অর্থ বর্ণনা করে বলেন, “আইন, ক্বাফ ও দাল- ধাতুটির মূল অর্থ একটিই দৃঢ় করণ, দৃঢ়ভাবে বন্ধন, ধারণ বা নির্ভর করা। শব্দটি যত অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে তা সবই এই অর্থ থেকে গৃহীত। [ইবনু আবী শাইবা, আবু বাকর আব্দুল্লাহ ইবনু মুহাম্মাদ (২৩৫ হি), আল-মুসান্নাফ (রিয়াদ, সৌদি আরব, মাকতাবাতুর রুশদ, ১ম প্রকাশ, ১৪০৯ হি]

আকিদা শব্দটি আক্দ মূলধাতু থেকে গৃহীত। যার অর্থ হচ্ছে, সূদৃঢ়করণ, মজবুত করে বাঁধা। (বায়ানু আকিদাতু আহলিস সুন্নাহ ওয়াল জামাআহ, ১/৪) কিপ রিডিং…

পজেটিভ থাকার ৫ উপায়

অথোর- টপিক- স্মার্ট লাইফ/হাইলাইটস

সহজে মনে রাখার স্বার্থে পজেটিভ থাকার ৫টি উপায়কে আমরা ইংরেজি ভাওয়েলের সিরিয়ালে চর্চা বা ব্যাখ্যা করতে পারি।


মানুষ কতভাবেই না পজেটিভ থাকতে চায়। পজেটিভ বা ইতিবাচক থাকার জন্য মানুষ কত কৌশল আর কত উপায় গ্রহণ করে। আসুন এবার আমরা কাজী এম. আহমেদের মুখ থেকে জেনে নেই পজেটিভ থাকার ৫টি উপায়।


কাজী এম. আহমেদ বলেন, সহজে মনে রাখার স্বার্থে পজেটিভ থাকার ৫টি উপায়কে আমরা ইংরেজি ভাওয়েলের সিরিয়ালে চর্চা বা ব্যাখ্যা করতে পারি। ইংরেজি ভাওয়েলগুলো হলো a, e, i, o, u। কিপ রিডিং…

জিমেইলের ছয়টি চমকপ্রদ গোপনীয় ফিচার!

অথোর- টপিক- ইন্টারনেট

গুগলের বিনামূল্যে ইমেইল সেবায় রয়েছে বেশ কিছু চমকপ্রদ গোপনীয় ফিচার। যা আপনাদের সবার জানা থাকলে অনাকাঙ্ক্ষিত সমস্যা থেকে অনেকটাই নিরাপদ থাকা যাবে।


সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগলের ইমেইল সেবা জিমেইল-এর ব্যবহারকারী বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক সংখ্যক। ইমেইল সেবা প্রদানকারী হিসেবে জিমেইল তার গ্রাহকদের জন্য নিত্য-নতুন সেবা প্রদান করে আসছে। আসুন জেনে নিই ফিচারগুলো কি কি…

‘আনডু সেন্ড’ শেষ মুহূর্তের ইমেইল এডিট করতে চালু করুন : ইমেইল লেখার পর সেন্ড বাটনে ক্লিক করলেন,ঠিক তখনই কোনো ভুল চোখে পড়েছে? কিংবা কোথাও আরেকটু সম্পাদনা করা দরকার। তো চিন্তার কিছু নেই। জিমেইল আপনাদের এই সুযোগটা দিবে যে, একটা ইমেল সেন্ড করার পরও সেটাকে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে চাইলে আনডু মানে যাতে গন্তব্যে না পৌঁছায় সেই ব্যবস্থা করে রাখা যায়।‘আনডু সেন্ড’ অপশনটি চালু করতে পারবেন জিমেলের জেনারেল সেটিংসে৷ কিপ রিডিং…

গো টু টপ