Daily archive

February 21, 2017

তাজমহল বিক্রি করে দিয়েছিলেন তিনি!

অথোর- টপিক- হিস্টোরি/হেরিটেজ

অগ্নিস্বর নাথ : ‘তাজমহল বিক্রি’ এই ধরনের শিরোনামে যারা অবাক হয়ে বলছেন, এও কি সম্ভব? তাদের কাছে ‘নটবরলাল’ নামটি আশা করি অজানা। নটবরলাল এক কুখ্যাত নাম যা পুরো ভারতবর্ষকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল নিজের বুদ্ধি, কুটিলতা, চুরি আর লোক ঠকানোর নজিরবিহীন ক্ষমতা দিয়ে। তিন তিনবার তাজমহলের মতো অপূর্ব ও নান্দনিক স্থাপত্য অবলীলায় বিক্রি করে দিয়েছিলেন এই ব্যক্তি। কথা বলার ধরন এবং লোক ঠকানোর নতুন নতুন চক্রান্তে নিজেকে প্রায় অধরা করে তুলেছিলেন। অনেকবার ধরা পড়ার পরও বারবার জেল পালিয়েছেন সুচারু পরিকল্পনায়। জানার ইচ্ছে হচ্ছে নিশ্চয়ই, কে ছিলেন এই নটবর? কী করেই বা তাজমহল বিক্রির মতো অসাধ্য সাধন করেছিলেন তিনি?

তাজমহলের সৌন্দর্য দেখে অবাক হয়ে তাকিয়ে রয়েছেন এক মার্কিন নবদম্পতি। এই অপার্থিব সৌন্দর্যের আট কাহন শুনছেন আর ভাবছেন এই তাজমহল যদি নিজেদের হতো। নিজেরাই যদি এই সৌন্দর্যের একমাত্র দাবিদার হতে পারতেন! ভালবাসার এই অমর চিহ্ন যদি নিজের নামে রাখা যেত।



কিপ রিডিং…

বাংলা ভাষার আর্তনাদ

অথোর- টপিক- লিটারেচার/লিড স্টোরি

আমিই বাংলাভাষা। আমি তোমাদের মুখে মুখে থাকি। সাথে সাথে থাকি। আমার বর্তমান অবস্থা খুবই নাজুক ভাই। আমাকে নিয়ে তোমরা অভিনয় করতে গিয়ে হিমশিশ খাচ্ছো দেখে আমি নিজেই আমার বর্তমান অবস্থা বর্ণনা করতে এলাম। একসময় আমি ছিলাম সুঠামদেহের অধিকারী। এখন ভালোমত হাঁটতেই পারি না। আগে সবাই যত্নকরে আমাকে ব্যবহার করতো। এখন অনেকের থেকে আমি বিতারিত। বলোতো আমি কি জোর করে তাদের কাছে এসেছি?


একুশে ফেব্রুয়ারি। একুশে ফেব্রুয়ারি মানেই ক্লাশ বন্ধ। নানা রকম অনুষ্ঠান। দৌড়াদৌড়ি, প্রাণখুলে হাসাহাসি। একুশের চেতনায় উজ্জীবিত হওয়া। এই দিনটার জন্য সারাবছর অপেক্ষায় থাকে শান্তরা। কারণ একুশে ফেব্রুয়ারির দিন ওদের স্কুলে মজার মজার অনুষ্ঠান হয়। এবারও হবে। ছাত্ররা নানান রকমের প্রস্তুতি নিচ্ছে। গতবার শান্তরা ভাষা শহীদের অভিনয় করে পুরো স্কুল কাঁপিয়ে দিয়েছিলো।

শান্তরা বলতে শান্ত, রাশু, হাসু আর নিতু। ওরা সালাম, রফিক, বরকত, জাব্বার সেজে চমৎকার অভিনয় করেছিলো। দর্শকরা দারুণ মুগ্ধ হয়েছিলো। স্যাররা খুব প্রশংসা করেছে ওদের। সেখান থেকেই ওদের প্রতি আলাদা ভালোবাসা স্যারদের। দুইদিন আগে হেড স্যার শান্তকে ডেকে নিয়ে বলেন,

: শান্ত, একুশে ফেব্রুয়ারি তো এসে পড়লো।

– জি, মাঝখানে শুধু একটা দিন বাকি।

: আমাদেরকে তো গতবার ভাষাশহীদদের অভিনয় দেখিয়েছিলে। এবার কি অভিনয় করবে তোমরা?

– স্যার, আমরা নিজেরা কোন সিদ্ধান্ত নেইনি এখনো। তবে আপনি কোন বিষয় দিলে আমরা সেই বিষয়েই অভিনয় করে দেখানোর চেষ্টা করবো। কিপ রিডিং…

গো টু টপ