Daily archive

March 12, 2017

আবু জাফর শামসুদ্দীন : ত্রিকালদর্শী নিবেদিত সাহিত্যিক

অথোর- টপিক-


আবু জাফর শামসুদ্দীনকে নিয়ে যে-আলোচনাটা আজকাল অনেকের জন্যেই বিব্রতকর, তা হলো—  তার প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশুনা । যদিও তার প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শুরু হয় গ্রামের প্রভাত পণ্ডিতের পাঠশালায় । তবে ১৯২৪ সালে স্থানীয় একডালা মাদরাসা থেকে তিনি জুনিয়র মাদরাসা পরীক্ষা এবং ১৯২৯ সালে ঢাকা সরকারি মাদরাসা থেকে হাই মাদরাসা পরীক্ষায় পাস করেন । এরপর কিছুদিন ঢাকা ইন্টারমিডিয়েট কলেজে পড়াশোনা করেছেন বটে; কিন্তু এ পর্যন্তই ।[1]অনেকেই মনে করেন— আবু জাফর শামসুদ্দীন যেসময় মাদ্রাসায় পড়েছেন, সে সময় মাদ্রাসা থেকে বড় বড় জ্ঞানী গুণীর জন্ম হতো। তিনি মাদ্রাসার ছাত্র ছিলেন বলেই সর্বপ্রথম ধর্ম নিয়ে যারা রাজনীতি করেন ও ধর্মের নামে যারা গোমরাহি করেন তাদের বিরুদ্ধে সাহসী লেখনীর মাধ্যমে শক্ত অবস্থান নিয়েছিলেন ।


এ ছাড়াও তার প্রকাশিত বইয়ের মধ্যে রয়েছে—  মধ্যপ্রাচ্য, ইসলাম ও সমকালীন রাজনীতি, পরিত্যক্ত স্বামী, মুক্তি, প্রপঞ্চ, দেয়াল, জীবন, শেষ রাত্রির তারা, রাজেন ঠাকুরের তীর্থযাত্রা, ল্যাংড়ী, নির্বাচিত গল্প,  চিন্তার বিবর্তন ও পূর্ব পাকিস্তানী সাহিত্য, সোচ্চার উচ্চারণ, সমাজ, সংস্কৃতি ও ইতিহাস, লোকায়ত সমাজ ও বাঙালি সংস্কৃতি, বৈহাসিকের পার্শ্বচিন্তা ইত্যাদি। তার বইগুলো রকমারি.কমে পেতে ক্লিক করুন এখানে…


সন্দেহ নেই, আবু জাফর শামসুদ্দীন ছিলেন একজন ধর্মনিরপেক্ষ ও প্রগতিশীল লেখক । তবে বর্তমানে যে-অর্থে ‘ধর্মনিরপেক্ষতা’ শব্দটির ব্যাখ্যা করা হয়, তিনি সে-জাতীয় অন্ধত্ব থেকে ছিলেন বহুদূরে । সাধারণ অর্থে তিনি ছিলেন একজন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাহিত্যিক। উপন্যাস, ছোট গল্প ও মননশীল প্রবন্ধ লিখে তিনি খ্যাতি অর্জন করেছেন।[2]
কিপ রিডিং…

সোনাক্ষির “নূর”!

অথোর- টপিক- এন্টারটেইনমেন্ট


বলিউডে দাবাং গার্ল খ্যাত সদা হাস্যময়ী সোনাক্ষি সিনহা নতুন রুপে ফিরছেন বড় পর্দায়। সোনাক্ষি সিনহা এবার খুবই সাধারণ ঘরের এক মেয়ে হয়ে ভিন্নরুপে দর্শকদের সামনে হাজির হচ্ছেন। রুপালি পর্দায় “নূর” নামের এক নারী সাংবাদিক চরিত্রের মাধ্যমে সোনাক্ষি সিনহা নিজেকে এবার ভিন্নভাবে জাহির করার চেষ্টায় আছেন। সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে সোনাক্ষী অভিনীত ‘নূর’ সিনেমাটির ট্রেলার।

পাকিস্তানি লেখিকা তথা সাংবাদিক সাবা ইমতিয়াজের উপন্যাস ‘করাচি’ ইউ আর কিলিং মি’ থেকে অনুপ্রাণিত নূরের চিত্রনাট্য ৷ তবে ছবির প্রেক্ষাপট মুম্বাই ৷ যেখানে সাংবাদিক হিসেবে বেশ বেগ পেতে হয় সোনাক্ষীকে ৷ হাসির মোড়কে পুরো গল্প সাজিয়েছেন পরিচালক ৷ সিনেমার কাহিনীও বেশ আনন্দপূর্ণ,তবে সাংবাদিক ও মনুষত্বের দ্বন্দ্বকে বেশ সুচারুরূপে পরিচালক সিনেমাটিতে তুলে ধরেছেন।
কিপ রিডিং…

বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের তালিকায় প্রথম বাংলাদেশি সালমান এফ রহমান

অথোর- টপিক- কর্পোরেট/লিড স্টোরি

বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় প্রথমবারের মতো উঠে এসেছে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী সালমান এফ রহমানের নাম। তিনি ১৩০ কোটি ডলারের মালিক। প্রতি ডলার ৮০ টাকা হিসাবে এ সম্পদের পরিমাণ দাঁড়ায় ১০ হাজার ৪০০ কোটি টাকা।আগেরবারের মতো এবারও শীর্ষ ধনী মাইক্রোসফটের কর্ণধার বিল গেটস। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৮ হাজার ১০০ কোটি ডলার বা ৬ লাখ ৪৮ হাজার কোটি টাকা, যা বাংলাদেশের দুই বছরের বাজেটের সমান। এবার তাঁর সম্পদ বেড়েছে ১ শতাংশ।


দেশের অন্যতম শীর্ষ শিল্পপতি এবং বেক্সিমকো গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান এক বিবৃতিতে বলেছেন, বেশকিছু অনলাইন পত্রিকায় ‘বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় সালমান এফ রহমান’ শীর্ষক একটি সংবাদ আমার নজরে এসেছে। চীনা প্রতিষ্ঠান হুরুন গ্লোবাল-এর বরাত দিয়ে প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়েছে আমার সম্পদের পরিমাণ ১৩০ কোটি ডলার। প্রতিষ্ঠানটি কিভাবে এই সম্পদের হিসাব করেছে তা আমার জানা নেই। সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী বেক্সিমকো গ্রুপের নিট সম্পদের পরিমাণ এর কাছাকাছি হতে পারে। আমার ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ এটা নয়।


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সম্পদের পরিমাণ ৪৫০ কোটি ডলার।  চীনভিত্তিক গবেষণা সংস্থা হুরুন গ্লোবালের গত মঙ্গলবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে আসে। ১০০ কোটি ডলারের বেশি সম্পদ রয়েছে এমন ব্যক্তিদেরই তালিকাভুক্ত করা হয়েছে প্রতিবেদনে। তালিকা অনুযায়ী, ডলারের হিসাবে বিশ্বে বর্তমানে ২ হাজার ২৫৭ জন বিলিওনিয়ার (১০০ কোটি ডলারের মালিক) রয়েছেন। তাঁদের মোট সম্পদের পরিমাণ ৮ লাখ কোটি ডলার, যা বিশ্বের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) ১০ দশমিক ৭ শতাংশ। কিপ রিডিং…

গো টু টপ