Tag archive

এডুকেশন

কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতির ঘোষণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রির সমমান দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এই স্বীকৃতির ফলে ইসলামিক স্টাডিজে এবং আরবি বিষয়ে এমএ ডিগ্রি পাবেন কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। প্রধানমন্ত্রী মঙ্গলবার রাতে গণভবনে কওমি মাদ্রাসার আলেম-ওলামাদের সঙ্গে এক বৈঠকে এই স্বীকৃতি প্রদান করেন। কওমি মাদ্রাসার স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য বজায় রেখে এবং ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দের মূলনীতিকে ভিত্তি করে এই সমমান দেওয়া হলো বলেও তিনি জানান। প্রধানমন্ত্রী আলেমদের উদ্দেশে বলেন, ‘প্রথমে একটা প্রজ্ঞাপন হবে। তারপর আপনারা যেভাবে চান সবকিছু মিলিয়ে একটা আইনি ভিত্তি দেওয়া হবে।’ কিপ রিডিং…

স্কলারশিপ নিয়ে জাপানে উচ্চশিক্ষার সুযোগ নিন

বাংলাদেশের বন্ধুরাষ্ট্র জাপান সরকারের অর্থায়নে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। প্রতিবছর জাপানে সরকারিভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়ে থাকে। ১৯৫৪ সাল থেকে জাপান সরকারের এই বৃত্তি চালু হয়। বর্তমানে জাপানে ওই বৃত্তির অধীনে দশ হাজারের মত বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী বিভিন্ন কোর্সে পড়াশোনা করছে। ২০১৭ সনের জন্য স্কলারশিপের ঘোষণা করা হয়েছে।

যোগ্যতা : বাংলাদেশের Bachelor/Master Degree (or MBBS degree) পাশ করা শিক্ষার্থীরা মাস্টার্স এবং পিএইচডির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে অবশ্যই জাপানি ভাষা জানতে হবে। এছাড়া টোফেল, আইইএলটিএস, জিআরই না থাকলেও আবেদন করা যাবে। তবে কিছু কিছু বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজি সার্টিফিকেট প্রদান করতে হয়।


এই স্কলারশিপের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে চাইলে এবং আবেদন করতে চাইলে ক্লিক করুন : http://www.mext.go.jp/en/ অথবা http://www.studyjapan.go.jp/en/


কিপ রিডিং…

আয়-ব্যয়ের হিসাব দিচ্ছে না বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো

শিক্ষা মন্ত্রনালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের(ইউজিসি) কাছে প্রত্যেকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের নিয়মিত হিসাব দেওয়ার আইন থাকলেও বেশিরভাগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ই সেই হিসাব জমা দিচ্ছে না। আবার যারা দিচ্ছে, তারাও নিয়মিত নয়।

ইউজিসি’র তথ্যানুযায়ী, দেশে মোট ৯৫টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে নয়টি তাদের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করেনি। আর এক বছর পূর্ণ না হওয়ায় ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের আয় ব্যয় হিসাবের বাইরে থাকবে। এছাড়া বাকি ৮০টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের হিসাব মন্ত্রণালয় ও কমিশনের কাছে হিসাব দিতে বাধ্য থাকবে।

কিন্তু এর মধ্যে কেবল মাত্র আটটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়মিত আয়-ব্যয়ের হিসাব মন্ত্রণালয় ও কমিশনে জমা দিচ্ছে। ইউজিসি জানায়, এ ব্যাপারে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কর্তৃপক্ষের কাছে বারবার তাগিদ দিয়েও কাজ হচ্ছে না। এছাড়া যেসব প্রতিবেদন কমিশনে জমা হচ্ছে তাতেও প্রকৃত তথ্য উঠে আসছে না বলে শঙ্কা ইউজিসির।

কিপ রিডিং…

গো টু টপ