Tag archive

টপ নিউজ

এক ডিমের মসজিদ



ফয়সল চৌধুরী। লোকমুখে প্রচার পৃথিবীতে একটি ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন বেঙ্গির মা নামে এক মহিলা। ‘ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়’ প্রবাদ বাক্যটি যেমন সত্য, তেমনি লক্ষ্য যদি থাকে আপনার অটুট একদিন সফলতা আসবেই। কবি গুরু রবিন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাষায় বলতে হয় ‘ছোট ছোট বালু কণা, বিন্দু বিন্দু জল, গড়ে তুলে মাহাদেশ সাগর অতল। এই কবিতাটুকু পড়লে মনে হয় কবিগুরুর কোন বাস্তব ঘটনা থেকেই কবিতাটি রচনা করেছিলেন। তেমনি আচার্য্যজনক এক ঘটনা ঘটেছে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে। সবাইকে অবাক করে দিয়ে ইতিহাসের পাতায় নাম লিখিয়েছেন এক মহিলা। তাকে সবাই ‘বেঙ্গির মা’ বলে ডাকলেও একটি মহৎ উদ্দ্যোগ নিয়ে এক আন্ডা (ডিম) গড়ে তুলেছেন একটি মসজিদ। এলাকাবাসী নাম দিয়েছেন এক আন্ডা’র মসজিদ। মসজিদটির নাম এখন সবার মুখে। এক আন্ডা থেকে কি ভাবে এক মসজিদ সে কথা শুনলে সবাই অবাক হন। মানুষের অসাধ্য কিছু নেই, মানুষ সাধনা করে আকাশে উড়েছে, পৌঁছেছে চাঁদের দেশে। তেমনি এক বেঙ্গির মা বাংলাদেশে জন্ম দিয়েছে এক ইতিহাস। আর তার রেখে যাওয়া স্মৃতি দেখার জন্য প্রতিদিন শত শত মানুষ আসে বেঙ্গির এক আন্ড’র (ডিম) মসজিদ দেখতে।

জানা যায়, জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের প্রজাতপুর গ্রামের তৎকালীন এক কৃষক সরফ উল্লার স্ত্রী বেঙ্গির মা ১৯০২ ইং, ১৩০৭ বাংলায় প্রজাতপুর ও লালপুর দুটি গ্রামের মাধ্যবর্তী স্থানে একটি মসজিদ নির্মাণ করেন। মসজিদ নির্মাণের শেষে এলাকাবাসীকে জড়িত করে মসজিদটির নাম করণ করেন ‘এক আন্ডা (ডিম)র মসজিদ’। তখন মসজিদের নামকরণ নিয়ে জনতার মধ্যে প্রশ্ন জাগলে তিনি ঘটনাটি খুলে বলেন। বেঙ্গির মা এলাকাবাসীকে জানান, তিনি একটি মুরগীর ডিম মসজিদের নামে মান্যত করে রাখেন। ঐ ডিমটি থেকে মুরগীর উতলে দিলে তা থেকে একটি বাচ্চার জন্ম হয়। পরবর্তীতে ঐ বাচ্চাটি বড় হলে তা থেকে আরো ৭টি ডিম হয়। পরবর্তীতে ঐ ৭টি ডিম থেকে ৭টি বাচ্চার জন্ম হয়। এভাবে এক পর্যায়ে মুরগীর খামার গড়ে তুলেন। ঐ খামারের মুরগী বিক্রি করে বেঙ্গির মা টাকা জমাতে থাকেন। তৎকালীন সময়ে তিনি এক লক্ষ টাকা জমা করে মসজিদটি তার স্বামীর মাধ্যমে নির্মাণ করে দেন। বেঙ্গির মা ছিলেন নিঃসন্তান। ঘটনা এলাকায় জানাজানি হওয়ার পরে মসজিদটির নাম সর্বত্র ছড়িয়ে পরে। মসজিদ নির্মাণের শত বছর অতিবাহিত হলেও এখন এ কাহিনী সবার মুখে মুখে। অনেকই মনে করেন একটি আন্ড (ডিম) থেকে একটি মসজিদ নির্মাণের ঘটনা ইতিহাসে এই প্রথম। তাও আবার একজন মহিলা কর্তৃক মসজিদ নির্মাণ সবাইকে অবাক করেছে। প্রজাতপুর ও লালপুর গ্রামবাসী ২০০৯ সালে মসজিদটির বর্ধিত অংশ সংস্কার করেছেন। কিন্তু বেঙ্গির মার মুল মসজিদটি এখনও বিদ্যমান রয়েছে। চলতি বছরে মসজিদটি নতুন করে রং করা হয়েছে।

এক আন্ডা (ডিম) এর মসজিদের খতিব মাওলানা আলমাছ উদ্দিন বলেন, আমি মসজিদ নির্মাণে বেঙ্গির মার এক এন্ডার গল্প শুনে অবাক হয়েছি। ইচ্ছা থাকলে মানুষ কিনা করতে পারে। তার ছেলে সন্তান না থাকলেও এই মসজিদটি পৃথিবী যতদিন থাকবে ততদিন স্বাক্ষী হয়ে রবে। বেঙ্গির মার প-পৌত্র প্রজাতপুর গ্রামের রাকিল হোসেন বলেন আমার পুর্ব পুরুষ নিঃসন্তান সরফ উল্লার স্ত্রী বেঙ্গির মা এই মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা। আমি আমার বাবার কাছ থেকে শুনেছি পরিদাদী বেঙ্গির মা একটি আন্ডা থেকেই এই মসজিদটি নির্মাণ করেন। বর্তমানে এলাকাবাসী কয়েক লক্ষ টাকা ব্যয় করে মসজিদের সুন্দর্য্য বৃদ্ধির জন্য সংস্কার করেছেন। মসজিদের মোতাওল্লী লন্ডন প্রবাসী আব্দুল হারিছ। কিন্তু তিনি দেশের বাহিরে থাকায় থাকায় তাকে পাওয়া যায়নি। প্রজাতপুর গ্রামের প্রবীণ উলফর উল্লাহ বলেন, আমাদের গ্রামের বেঙ্গির মা এমন একটি কাজ করেছেন, যা সারা জীবনেও ভুলার মত নয়। আমি বেঙ্গির মার কাছ থেকে শুনেছিলাম তিনি একটি ডিম থেকে একটি মুরগীর খামাড় গড়ে তুলেছিলেন। ঐ খামারের একটি টাকাও তার সংসারের কাজে ব্যয় করেন নি। সম্পূর্ণ টাকা দিয়ে মসজিদ নির্মাণ করেন। কিপ রিডিং…

২০২০ সালে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে রোবট!

নিউজিল্যান্ডের উদ্যোক্তা নিক গ্যারিটসেনের উদ্ভাবন ইঙ্গিত দিচ্ছে, অদূর ভবিষ্যতে একসময় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাই এই পৃথিবীকে নিয়ন্ত্রণ করবে। মানুষ পুরোমাত্রায় নির্ভরশীল হয়ে পড়বে এর ওপর। অনেক বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনির সারবস্তু এটাই। কল্পকাহিনি আর কল্পনায় সীমাবদ্ধ থাকবে না। বরং এরাই হবে  ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার রাজনীতিবিদ’।

৪৯ বছর বয়সী নিক গেরিটসেনের উদ্ভাবিত ভার্চ্যুয়াল রাজনীতিবিদ স্থানীয় নানা বিষয়সহ গৃহায়ণ, শিক্ষা ও অভিবাসনের মতো ইস্যুগুলো নিয়ে মানুষের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে। গেরিটসেন এর নাম দিয়েছেন ‘স্যাম (এসএএম)’। তিনি বলেন, বর্তমানে রাজনীতির চর্চায় মতপার্থক্যের মাত্রা অনেক বেশি। তাই জলবায়ু পরিবর্তন ও সমতার মতো জটিল ইস্যুগুলো বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশে সমাধান করা যাচ্ছে না। এ জন্যই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার রাজনীতিবিদ উদ্ভাবন করেছেন তিনি।

গেরিটসেন বলেন, আমি বিশ্বাস করি, বিভিন্ন দেশে যে রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক বিভেদ সৃষ্টি হচ্ছে, তাতে সেতুবন্ধ তৈরি করতে সক্ষম হবে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। গেরিটসেন আশা করছেন, ২০২০ সাল নাগাদ তাঁর এই উদ্ভাবন স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে পারবে। ওই বছর নিউজিল্যান্ডে জাতীয় নির্বাচন। সেই নির্বাচনে স্যাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে বলেও তিনি আশাবাদী।

তিন তালাক দিলে তিন বছর জেল!

এক সাথে তিন তালাক শব্দ উচ্চারণ করে বা তিন তালাক লিখে তাৎক্ষণিকভাবে বিবাহ বিচ্ছেদের বিরুদ্ধে ভারতে আইন করা হচ্ছে। নতুন এই আইন অনুযায়ী, তিন তালাক শব্দ উচ্চারণ করলে বা লিখে পাঠালে বিবাহ বিচ্ছেদ বৈধ হবে না। এই আইনে আরো বলা হচ্ছে, কেউ যদি এমন কাজ করে (তিন তালাক শব্দ উচ্চারণ করে বা লিখে পাঠায়) তাহলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির তিন বছর কারাদণ্ড বা জেল হতে পারে। প্রস্তাবিত এই আইনের খসড়া এখন পরামর্শের জন্য ভারতের রাজ্য সরকারগুলোর কাছে পাঠানো হয়েছে। কারাদণ্ড বা জেলের পাশাপাশি তালাকাপ্রাপ্তা নারীদের প্রাপ্য জরিমানা দেওয়ার বিধানও রাখা হবে এই আইন।


নতুন এই আইনটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘মুসলিম উইমেন প্রোটেকশন অব রাইটস অন ম্যারেজ বিল’।


ভারতের সুপ্রিম কোর্টের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, ‘তিন তালাক দেওয়ার পর যদি কোনো স্বামী তাঁর স্ত্রীকে বাড়ি ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য করে, তাহলে তালাকাপ্রাপ্তা নারী সব ধরনের আইনি সুবিধা পাবে- এমন নির্দেশনা আছে নতুন আইনের খসড়ায়’। তিনি আরো বলেন, ‘এই খসড়া পার্লামেন্টের আগামী শীতকালীন সভায় পাস হওয়ার সম্ভাবনা আছে’। কিপ রিডিং…

হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বন্যার্তদের বিনামূল্যে নৌকা ও ত্রাণ বিতরণ

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের বহু মানুষ। সারাদেশ থেকে বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষ সাধ ও সাধ্যের মিলন ঘটিয়ে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে। শুকনো খাবারসহ নানাবিধ বহু বস্তু প্রদান করা হচ্ছে তাদের। কেউ কেউ তুলে দিচ্ছেন নগদ অর্থও। এরই ধারাবাহিকতায় ওয়ার্ল্ড ওয়াইড হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের (এইচআরএফ) উদ্যোগে নেত্রকোনায় সুসং দূর্গাপুরের ভাদুয়া গ্রামের অসহায় শ্রমজীবি পরিবার ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের সহযোগিতা ও ভবিষ্যৎ কর্মসংস্থানের চিন্তা করে বিনামূল্যে ২৫টি নৌকা ও ২০০ প্যাকেট চাউল, ডাউর, আটা, লবণ ও প্রয়োজনীয় খাদ্র পণ্য বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়।
বিনামূল্যে নৌকা ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ল্ড ওয়াইড হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের সম্মানিত চেয়ারম্যান প্রফেসর এমদাদুর হক খান, পরিচালক জনাব মো. মাহবুবুর রহমান। ত্রাণ ও নৌকা বিতরণকালে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের সম্মানিত চেয়ারম্যান প্রফেসর এমদাদুর হক খান বলেন, ‘আমরা শুধু বন্যাকালীন সমস্যার কথা ভাবিনি। বন্যা চলে যাওয়ার পর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এসব মানুষ কী করবে? কীভাবে চলবে তাদের সংসার? এসব কথা ভেবে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে ২৫টি নৌকা গরিব-অহসায় মানুষদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। বন্যার ক্ষতিকর প্রভার কাটিয়ে ওঠার পর এসব নৌকার সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে তাদের ভবিষ্যৎ কর্মসংস্থান নিশ্চিত হবে আশা করা যায়।’ কিপ রিডিং…

বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০ মুসলিম ব্যক্তিত্ব

দ্য ওয়ার্ল্ডস ফাইভ হানড্রেড মোস্ট ইনফ্লুনসিয়াল মুসলিম-জর্ডানের রাজধানী আম্মানে অবস্থিত দ্য রয়েল ইসলামিক স্ট্যাটিজিক স্টাডিজ সেন্টার দ্বারা পরিচালিত একটি আয়োজন। যারা মূলত বিশ্বব্যাপি প্রতিবছর প্রভাশালী মুসলিম ব্যক্তিত্ব নির্বাচনকেন্দ্রিক একটি জরিপ পরিচালনা করে থাকে। এটি একটি সম্পূর্ণ বেসরকারি স্বাধীন গবেষণা সংস্থা। প্রতি বছরের মতো ২০১৭ সালে পরিচালিত জরিপে উঠে এসেছে বিশ্বময় ছড়িয়ে থাকা ৫০০ প্রভাবশালী মুসলিম ব্যক্তিত্বের নাম। ৫০০ প্রভাবশালী মুসলিম ব্যক্তিত্বের নাম নির্বাচন করার পর আরো দুই ধাপে দুটি জরিপ অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম ধাপে সবচেয়ে প্রভাবশালী ৫০ জন ব্যক্তিত্বকে নির্বাচন করা হয় এবং দ্বিতীয় ধাপে সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০জন ব্যক্তিত্বকে নির্বাচন করা হয়। ২০১৭ সালের নির্বাচিত বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্ব কারা নির্বাচিত হয়েছেন? চলুন জেনে নেই বিশ্বের সবেচেয়ে প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের নাম ও সংক্ষিপ্ত পরিচয়।

১. অধ্যাপক ড. শেখ আহমদ মুহাম্মদ আল-তৈয়ব: বিশ্বের সবেচেয় প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকার প্রথমে রয়েছেন তিনি। ২০১৬ সালের জরিপে তিনি দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন। তার দেশ মিশর। জন্ম- ১৯৪৬ সালে। মূলত প্রশাসনিক ক্ষমতার কারণে তিনি প্রভাশালী নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি একজন ঐতিহ্যবাহী সুন্নি মুসলিম। বর্তমানে তিনি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রান্ড শায়খ এবং আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদের গ্রান্ড ইমাম হিসেবে দায়িত্বরত রয়েছেন। এরপূর্বে তিনি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রায় সাত বছর এবং মিশরে সবচেয়ে শক্তিশালী ধর্মীয় নেতা বা গ্র্যান্ড মুফতি হিসাবে দুই বছর দায়িত্ব পালন করেছেন।

২. কিং আবদুল্লাহ (দ্বিতীয়) ইবনে আল হুসাইন: বিশ্বের সবেচেয় প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকার দ্বিতীয় ব্যক্তিত্ব তিনি। ২০১৬ সালের জরিপে তিনি প্রথম ছিলেন। তার দেশ জর্ডান। জন্ম- ১৯৬২ সাল অনুযায়ী বর্তমানে তার বয়স ৫৪ বছর। রাজনীতি এবং ঐতিহ্যবাহী বংশের বিবেচনায় তিনি প্রভাবশালী নির্বাচিত। তিনিও একজন ঐতিহ্যবাহী সুন্নি মুসলিম নেতা। বর্তমানে তিনি জর্ডানের হাশেমাইট কিংডমের রাজা এবং জেরুজালেমের বিভিন্ন অঞ্চলের জিম্মাদার হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। মুসলিম বিশ্বের দুটি বিরাট দ্বন্দ্ব নিরসনে ভূমিকা পালন করার মাধ্যমে কিং আবদুল্লাহ (দ্বিতীয়) বিশ্বব্যাপী পরিচিতি অর্জন করতে সক্ষম হন।

৩. কিং সালমান বিন আবদুল আজিজ কিন আল সৌদ: বিশ্বের সবেচেয় প্রভাবশালী ১০জন মুসলিম ব্যক্তিত্বের তালিকার তৃতীয় স্থান অধিকার করে আছেন তিনি। ২০১৬ সালের জরিপেও তিনি তৃতীয় স্থানে ছিলেন। তার দেশ সৌদি আরব। জন্ম- ৩১ ডিসেম্বর ১৯৩৫ মোতাবেক তার বয়স ৮০ বছর। রাজনৈতিক ক্ষমতার বিবেচনায় তিনি প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। কিং সালমান বিন আবদুল আজিজ মর্ডারেট সালাফি মুসলিম নেতা। বর্তমানে তিনি রয়েল সৌদি আরবের বাদশাহ এবং সৌদি আরবে অবস্থিত পবিত্র দুই মসজিদের জিম্মাদার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তিনি এই পদে আসীন হন। এর পূর্বে তিনি ক্রাউন প্রিন্স হিসেবে সৌদি সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। কিপ রিডিং…

ইসলামী লেখক ফোরামের সভাপতি বাবর, সম্পাদক মুনীর

বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের ২০১৭-১৮ সেশনের কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ঢাকাটাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকমের যুগ্ম বার্তা সম্পাদক জহির উদ্দিন বাবর। সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন কবি মুনীরুল ইসলাম।

এছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আমিন ইকবাল এবং কোষাধ্যক্ষ পদে মুফতি তাসনিম নির্বাচিত হয়েছেন।


বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরাম ইসলামি ধারার তরুণ লেখকদের ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্ম। ২০১৩ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে এই সংগঠনটি যাত্রা শুরু করে। ইতোমধ্যে লেখকদের উন্নয়নে ফোরাম বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে।


কমিটির অন্য দায়িত্বশীলরা হলেন- সহ-সভাপতি রায়হান মুহাম্মদ ইবরাহিম, মাসউদুল কাদির, গাজী মুহাম্মদ সানাউল্লাহ; সহ-সাধারণ সম্পাদক আবদুল মুমিন ও হাসনাইন হাফিজ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান খসরু, রোকন রাইয়ান; প্রকাশনা সম্পাদক এমদাদুল হক তাসনিম; তথ্যপ্রযুক্তি সম্পাদক নকিব মাহমুদ; সাহিত্য সম্পাদক সায়ীদ উসমান; আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুল গাফফার, আইন ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আনছারী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক আবদুল্লাহ মোকাররম, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক ওমর ফারুক মজুমদার। এছাড়া নির্বাহী কমিটির সদস্য পদগুলো প্রথম বৈঠকে পূরণ করা হবে।

কিপ রিডিং…

ববি হাজ্জাজের নেতৃত্বে নতুন রাজনৈতিক দল

পাঁচ দফা দাবি নিয়ে ববি হাজ্জাজের নেতৃত্বে আত্মপ্রকাশ করলো নতুন রাজনৈতিক দল জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম)। সোমবার (২৪ এপ্রিল) বিকালে রাজধানীতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে দলটির আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে ববি হাজ্জাজ বলেন, ‘এই দলে সবাই সমান। দলের সব বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কর্মীদের সম্মতিতে, তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে।


এনডিএম-এর দাবিগুলো হলো— জবাবদিহিতামূলক গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, দুর্নীতি ও লুটতরাজ বন্ধ, রাজনৈতিক সহিংসতায় ছাত্র ও যুবকদের ঠেলে দেওয়া বন্ধ, আইনের শাসন কায়েম করতে প্রশাসনে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ বন্ধ এবং সাংবিধানিক মৌলিক অধিকার বাকস্বাধীনতা নিশ্চিত করতে হবে।


নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই করা হবে প্রাইমারির মাধ্যমে। কোনও ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর স্বার্থ হাসিলের জন্য এই দল নয়। এনডিএম প্রতিহিংসা ও বিভেদের রাজনীতি করবে না।’
কিপ রিডিং…

যৌথভাবে বাংলাদেশ-ভারতে পিআর সেবা দেবে টাইমস পিআর ও লঞ্চার্জ

বাংলাদেশ এবং ভারত প্রথমবারের মত যৌথভাবে পাবলিক রিলেশন (পিআর) সেবা দেবে বাংলাদেশের টাইমস পিআর এবং ভারতের লঞ্চার্জ। সোমবার কলকাতার হাজরা, মনোহর পুকুর রোডে লঞ্চার্জের প্রধান কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ব্যাপারে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

এ সময় বাংলাদেশের হয়ে টাইমস পিআর-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মিজানুর রহমান সোহেল এবং ভারতের হয়ে লঞ্চার্জের সহ-প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক রাজিব লোধাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। দুই প্রতিষ্ঠানের চুক্তি সম্পর্কে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অল ইন্ডিয়াতে এই পিআর সেবা দেবে লঞ্চার্জ। কিপ রিডিং…

ফটোগ্রাফার ওবামা!


যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা যখন স্ত্রী মিশেল ওবামার ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার। ছবি: এএফপি


বারাক ওবামা সাবেক প্রেসিডেন্টের খাতায় নাম লিখিয়েছেন তিন মাস হতে চলল। সেই থেকে মোটামুটি আড়ালেই আছেন তিনি ও সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা। আড়ালে থেকে সময়টা যে তাঁরা বেশ ভালোই কাটাচ্ছেন, বিভিন্ন সময় প্রকাশিত ছবি সে কথাই বলছে। সর্বশেষ তাঁদের একটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে। যথারীতি সেটিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

টুইটারে ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, বেশ আবেদনময়ীর সাজে সেজেছেন মিশেল। কালো টপস আর সাদা মিনি স্কার্ট। জাহাজের ডেকে দাঁড়িয়ে থাকা মিশেলের চুলগুলো উড়ছে আউলা বাতাসে। আর তাঁকে এ অবস্থায় ক্যামেরাবন্দী করার কাজটি করে যাচ্ছেন একজন। তিনি আর কেউ নন, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। কিপ রিডিং…

সিটিং লোকাল হলো, কিন্তু ভাড়া কমল না

রোববার বেলা সাড়ে ১১টা। রাজধানীর মিরপুর রোডে যাতায়াতকারী অগ্রদূত পরিবহনের একটি বাস আগারগাঁওয়ে থামালেন অভিযানে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুনিবুর রহমান। বাসের মধ্যে ভাড়ার কোনো তালিকা না থাকায় এক হাজার টাকা জরিমানা করলেন। কেবল এ বাসটি নয়, এই পথে চলাচলকারী বিকল্প ও শেকড়ের কয়েকটি বাসেও ভাড়ার তালিকা পাওয়া যায়নি। তা ছাড়া বাড়তি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে আরও কয়েকটি বাসের বিরুদ্ধে।
রাজধানীর আগারগাঁও, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার মোড়, শাহবাগ ও রমনা এলাকায় বাসে থাকা এবং অপেক্ষমাণ যাত্রীদের অভিযোগ, সিটিং সার্ভিস বন্ধ হলেও বাসগুলো ভাড়া কমায়নি। বরং লোকাল বাসের মতো যেখানে সেখানে যাত্রী তুলছে। আর সর্বনিম্ন সাত টাকা ভাড়া থাকলেও বাসের কর্মচারীরা অনেক ক্ষেত্রেই এর চেয়ে বেশি নেয় বলে অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা।
অবশ্য অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়াসহ নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে আজ রোববার রাজধানীর আসাদগেট, আগারগাঁও (আইডিবি ভবনের সামনে), শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পাশে, রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের সামনে ও যাত্রাবাড়ীর চাংপাই রেস্তোরাঁর সামনে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়েছেন। অভিযানের কারণে সড়কে বাস কম ছিল। তবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফিরে না আসা পর্যন্ত গণপরিবহনে অভিযান চলবে। কিপ রিডিং…

গো টু টপ