Tag archive

ড. মাওলানা মুশতাক আহমদ

ইমাম আবু হানিফা— বুদ্ধিভিত্তিক জ্ঞানচর্চার পুরোধা


গ্রেট ফকিহ অব ইসলাম— ০১ 


বিশিষ্ট তাবিয়ী বিদগ্ধ আলিম ও ইজতিহাদ জগতের মেহেরবান রাহনুমা ছিলেন হজরত ইমাম আবু হানিফা। জ্ঞান রাজ্যের শ্রেষ্ঠতম গৌরব। তিনিই সর্ব প্রথম পবিত্র কুরআন ও সুন্নাহর বুদ্ধিভিত্তিক গবেষণা কর্মের দুয়ার উম্মোচন করেন এবং মানুষের জীবন ও জগতের সকল পরিবর্তনশীলতার মাঝেও নববী আদর্শের নিখুত অনুসারী হয়ে দুনিয়া ও আখিরাতের সার্বিক সফলতা অর্জনের পথ প্রদর্শন করেন। আজ মুসলিম উম্মাহর বিভিন্ন ক্ষেত্রে জ্ঞানচর্চার যত দিকপাল আমরা দেখি সবাই তাঁর কাছে ঋণী। সবাই এই ইমাম আবু হানিফার পথ ধরেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তিনি ইসলামের বিশুদ্ধ গবেষণা ও ইজতিহাদের পথিকৃত, তিনি এই মহাজগতের পুরোধা, তিনি ইমাম আজম। পৃথিবীতে সক্রেটিস প্লেটো আইনস্টাইন প্রমুখ বিজ্ঞজন বিশ্বমানবতাকে জ্ঞান ও দর্শনের দীক্ষা দান করেছেন। তাঁরা মানুষের জীবন ও জগত সুডৌল করার পথ ও পদ্ধতি তুলে ধরেছেন। কিন্তু তাঁদের সে সব দর্শন ও দিকনির্দেশনা ছিল একপেশে, একদিকদর্শী ও অপূর্ণ।

তাদের দর্শনে জাগতিক সফলতার বহুবিদ উপকরন বিদ্যমান কিন্তু মানুষের অন্তর, মানুষের মননজগত, মানুষের মওত ও আখিরাতকে অভিষ্পিত পাওয়ার ব্যাপারে সেখানে কোন নির্দেশনা নেই। এক্ষেত্রে ইমাম আবু হানিফা অনন্য। এক্ষেত্রে তিনি সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন। তিনি সাদা কালো নির্বিশেষে বিশ্ব মানবতার বিশ্বাস ও আকায়েদ, জ্ঞান ও চেতনা, নৈতিকতাবোধ, আচার আচরণ, দৈনন্দিন জীবন চলার নিখুত পথ ও পাথেয়, ইবাদত বন্দেগী, ওযীফা ওযায়েফ থেকে শুরু করে জীবনের সর্বাঙ্গীন কল্যাণ ও সফলতার সহজসাধ্য নির্দেশনা পেশ করেন; তার সেই নির্দেশনা সকল পরিবর্তনশীলতার চাকার সাথে সর্বদা খাপ খাইয়ে চলার উপযোগী ও পূর্ণাঙ্গ।


লিখেছেন ড. মাওলানা মুশতাক আহমদ


কিপ রিডিং…

মাতৃভাষা দিবসে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও লেখক সম্মাননা

আসছে ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। মায়ের ভাষায় কথা বলার মানবিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে ১৯৫২ সালের এদিনে প্রাণ দিয়েছিলেন সালাম, রফিক, আব্দুল জব্বরসহ নাম না-জানা অনেক ভাষাশহীদ। ঢাকার পিচঢালা রাজপথ সেদিন রক্তে লাল হয়ে উঠেছিলো।

দিবসটিকে ভিন্নভাবে উদযাপনের উদ্যোগ নিয়েছে ইসলামি প্রকাশনী মাকতাবাতুল আযহার। দেশের তৃণমূল পর্যায়ে বাংলা বই ছড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে প্রকাশনীটি ভাষাচর্চার ক্ষেত্রে কার্যকর অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছে। প্রকাশনীটি এবারের ২১ ফেব্রুয়ারির আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে নতুন ১২টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও লেখক সম্মাননা প্রদানের পদক্ষেপ নিয়েছে। নতুন বইগুলোর মধ্যে রয়েছে- ইয়াহইয়া ইউসুফ নদভীর ‘গল্পে আঁকা ইতিহাস’ ও ‘আবু গারিবের বন্দি’; সাংবাদিক শরীফ মুহাম্মদের ‘সুপ্রভাত মাদরাসা’ ও ‘লেখালেখি’; মাওলানা আবুল ফাতাহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়ার ‘রচনা-সম্ভার’; দৈনিক যুগান্তরের কলামিস্ট মুফতী মুতিউর রহমানের ‘এ যুগের মাসায়িল’; আলোকিত বাংলাদেশের সহ-সম্পাদক আলী হাসান তৈয়বের ‘আলোর জীবন ফুলেল ভুবন’; সালাহউদ্দীন জাহাঙ্গীরের ‘বাংলার বরেণ্য আলেম’ ও আবদুল্লাহ আল ফারুকের ‘ইতিহাসের মৃত্যুঞ্জয়ী মহাবীর টিপু সুলতান’ ও ‘খোলা চিঠি’।


এবার পদকপ্রাপ্তদের তালিকায় রয়েছেন- মাওলানা আবদুল গাফফার, মাওলানা জাফর আহমদ, মাওলানা আবুল ফাতাহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়া, মাওলানা ড. মুশতাক আহমদ, ইয়াহইয়া ইউসুফ নদভী  ও আবদুল্লাহ আল ফারুক।


কিপ রিডিং…

গো টু টপ