Tag archive

রেকর্ড

হাতের ক্রাচে ভর দিয়ে ১০০ মিটার দৌঁড়ানোর বিশ্বরেকর্ড!


গিনেসওয়ার্ল্ড রেকর্ড-০৬


শারিরীক প্রতিবন্ধী হওয়া সত্ত্বেও তার অক্ষমতাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে নতুন ধরনের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে সবার জন্য অুনপ্রেরণার এক অনন্য দৃষ্টান্তের প্রতীকী মানুষ ইথিওপিয়ার তামিরু জিগিয়ে। হাতের ক্রেচের ওপর ভর করে ভারসাম্য রক্ষা করে মাত্র ৫৭ সেকেন্ডে ১০০ মিটার পথ পাড়ি দিয়েছেন। এটি হাতের ক্রাচে ভর দিয়ে সবচেয়ে কম সময়ে ১০০ মিটার দৌঁড়ানোর রেকর্ড। মূল ইংরেজি লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে…

তামিরু বিকলাঙ্গ পা নিয়ে জন্মগ্রহণ করেন এবং তিনি জানতে পারেন তার পা কখনোই ব্যবহার করেতে পারবেন না। কিন্তু তার স্বপ্নকে  দমিয়ে রাখতে পারেনি তার শারিরীক প্রতিবন্ধকতা।তাই শৈশব থেকেই তিনি হাতের ওপর ভর করে চলার কৌশল রপ্ত করে নিয়েছেন। বর্তমানে তিনি জার্মানিতে বাস করেন এবং একটি সার্কাস পার্টির হয়ে কাজ করছেন।
কিপ রিডিং…

মাত্র ২৮ বছর বয়সে ১৯৬টি দেশ ভ্রমণ করার বিশ্বরেকর্ড !

সারাবিশ্বের ১৯৬টি দেশ ভ্রমণ করা সহজ কথা নয়। আর এ অসাধ্য সাধন করেছেন মাত্র ২৮ বছর বয়সী এক ব্যাংকার। পাহাড়, মরুভূমি, সমুদ্র, নদী- এই বিশ্বে যা যা দেখার থাকতে পারে, তার বেশিরভাগই স্বচক্ষে দেখে ফেলেছেনভ্রমণলোভী জেমস অ্যাসকুইট। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট। মূল ইংরেজি লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে…

শুধু ভ্রমণই নয়, সব থেকে কম বয়সে বিশ্বের প্রথম পর্যটক হিসাবে ১৯৬টি দেশে ভ্রমণ করার রেকর্ডও গড়েছেন তিনি। কারণ মাত্র ২৪ বছর বয়সেই তিনি অধিকাংশ ভ্রমণের কাজ শেষ করেছেন। তার এ ভ্রমণে সময় লেগেছে প্রায় পাঁচ বছর। বিগত ২০১৩ সালে ভ্রমণ শেষে  তিনি তার সেই ভ্রমণের স্বীকৃতি হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের সনদপত্র পান। আর এ কারণে তার ভ্রমণকাহিনীও স্থান পেয়েছে বিশ্বরেকর্ডের খাতায়। কিপ রিডিং…

অস্বাভাবিক পাঁচটি বিশ্বরেকর্ড!


কিছু কিছু রেকর্ড থেকেই যায় যা আমাদের ক্ষণে ক্ষণে বিস্মিত করে তোলে।


আহমেদ ইশতিয়াক বিধান : আমাদের এই পৃথিবী বড়ই বিচিত্রময়। তার চেয়েও বিচিত্রময় এর মানুষেরা। এ বৈচিত্র্যতার জন্য সর্বদাই এ বিশ্বে নতুন নতুন রেকর্ডের সৃষ্টি হয়ে চলেছে। তাই বিশ্ব রেকর্ডের পরিমাণ এ বিশ্বে নেহায়েত কম নয়। সবগুলো রেকর্ডই নিজের নিজের জায়গায় অনন্য। কিন্তু তার মাঝেও কিছু কিছু রেকর্ড থেকেই যায় যা আমাদের ক্ষণে ক্ষণে বিস্মিত করে তোলে। আজ এমনই কয়েকটি বিশ্ব রেকর্ডের গল্প নিয়ে এসেছি আপনাদের সামনে। তো চলুন শুরু করা যাক।

১. হাতবিহীন তীরন্দাজের তীর ছোঁড়ায় বিশ্ব রেকর্ড : ম্যাট স্টাটজম্যান একজন আমেরিকান তীরন্দাজ। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত ছিলো না। হাত নেই কিন্তু তীরন্দাজ হবেন সেটা কি কল্পনা করা যায়? কিন্তু স্টাটজম্যান নিজের এই অক্ষমতাকেই চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিলেন। তিনি শুধু তার কাঁধ আর পা ব্যবহার করেই এক বিশেষ পদ্ধতিতে তীর ছোঁড়েন। নিয়মিত চেষ্টার ফলে ২০১২ সালের প্যারা অলিম্পিকে সিলভার মেডেলও জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু তিনি করতে চেয়েছিলেন বিশ্ব রেকর্ড।

ম্যাট স্টাটজম্যান একজন আমেরিকান তীরন্দাজ। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত ছিলো না। হাত নেই কিন্তু তীরন্দাজ হবেন সেটা কি কল্পনা করা যায়? কিন্তু স্টাটজম্যান নিজের এই অক্ষমতাকেই চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিলেন। তিনি শুধু তার কাঁধ আর পা ব্যবহার করেই এক বিশেষ পদ্ধতিতে তীর ছোঁড়েন। নিয়মিত চেষ্টার ফলে ২০১২ সালের প্যারা অলিম্পিকে সিলভার মেডেলও জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু তিনি করতে চেয়েছিলেন বিশ্ব রেকর্ড।
কিপ রিডিং…

পানির নিচে পৃথিবীর দীর্ঘ মানববন্ধনের রেকর্ড!


পানির নিচে এমন আয়োজন করা বিষয়ে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান রেইড ইটালিয়ার মুখপত্র গিনেস বুক ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষকে জানান, আমরা এই আয়োজন করেছি মানুষকে দেখাবার জন্য যে, স্কুবা ডাইভিং কতোট বিস্ময়কর ও অভূতপূর্ব অভিজ্ঞতা।


স্কুভা ডাইভার ট্রেনিং এজেন্সী ইটালিয়া সাম্প্রতিক সমযে পানির নিচে পৃথিবীর দীর্ঘ মানববন্ধনের আয়োজন করেছিল। ১৭৩ জন মানুষের অংশগ্রহণে পানির নিচের এই মানববন্ধন ইটালির বোলগনা সাগরের এলবা আইসল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়। এই মানববন্ধন এরইমধ্যে গিনেস বুক ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে স্থান লাভ করেছে। ইংরেজি মূল আর্টিকেলটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে…
কিপ রিডিং…

লম্বা দাড়িওয়ালা সর্বকনিষ্ঠ নারী মডেল


তিনিই প্রথম নারী মডেল যিনি দাড়ি নিয়ে প্রথম রানওয়েতে হেঁটেছেন। বিগত ২০১৬ সালের মার্চে লন্ডন ফ্যাশন উইকের রানওয়েতে হেঁটেছিলেন তিনি।


বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ নারী হিসেবে ছয় ইঞ্চির দীর্ঘতম দাড়ি রাখার কারণে সুহাস্য রমণী হারনাম কাউর গিনেস বুক ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন। ভারতীয় বংশোদ্ভুত ব্রিটেনে বার্কশায়ারের বাসিন্দা নারী হারনাম কর ।শরীর নিয়ে ইতিবাচক প্রচারক ও মডেল হারনাম কাউর হরমোনজনিত সমস্যা পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোমে আক্রান্ত। এ কারণেই তাঁর শরীরের লোম, দাড়ি ও চুলের বৃদ্ধি বেশি। অনেক কম বয়সেই তার এই সমস্যা শুরু হয়। কয়েক বছর এ সমস্যা তিনি লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করেন। কিন্তু মাসে তিনবার এগুলো তুলে ফেলা তার জন্য কষ্টকর ছিল। তাই একটা সময় তিনি এই দাড়িতেই অভ্যস্ত হওয়ার চেষ্টা করেন। তিনি শিখ ধর্মে দীক্ষা নেন। এ ধর্মে চুল দাড়ি কাটা নিষিদ্ধ। এরপর তিনি আর কখনো দাড়ি কাটেননি। ইংরেজি মূল আর্টিকেলটি পড়তে প্রবেশ করুন এই লিঙ্কে…

এক সময় দাড়িতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েন তিনি। এভাবেই নিজেকে খুশি রাখতে চান। কিন্তু যে দাড়ির জন্য এক সময় সবার কাছে তাঁকে হেয় হতে হতো সেটাই  তার জীবনে আশীর্বাদ হিসেবে দেখা দেবে, এটি নিশ্চয় তিনি নিজেও কোনোদিন ভাবতে পারেননি। কিন্তু এমনটিই ঘটেছে ২৪ বছর বয়সী  হারনাম করের জীবনে।


কিপ রিডিং…

১৫ হাজার ফিট ওপরে প্যারাসুটে ঝুলে জাদু প্রদর্শন

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড কর্তৃপক্ষ বিশ্ববাসীকে নতুন চমক উপহার দেয়ার জন্য তাদের ঘোষিত গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড দিবসটি বিগত বছরে অভিনব আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপন করে। তারা সেইদিন অভিনব এক যাদুপ্রদর্শনের আয়োজন করে।

এই আয়োজনে ১৫০০০ ফিট ওপর থেকে স্কাইডাইভ করে যাদুবিদ্যার ১১টি ট্রিকস প্রদর্শন করে গিনেস বুকে নতুন রেকর্ড গড়ে নাম লেখালেন যাদুশিল্পী মার্টিন রিজ। উড়ন্ত বিমান যখন ১৫০০০ফিট ওপরে,ঠিক তখনই যাদুশিল্পী আকাশ থেকে লাফিয়ে পড়েন।

সাহসী ও রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতায় যাদুশিল্পী মার্টিন রিজ সবার বিনোদনের জন্য দুঃসাহসী এ পদক্ষেপ প্রদর্শন করে গিনেস বুকে নতুনভাবে নাম লেখালেন। স্কাইডাইভ দিয়ে ১২০ মাইল গতি থাকা অবস্থায় যাদুশিল্পী ১১টি যাদু প্রদর্শন করেন। এ সময় তার যাদু প্রদর্শনের ভিডিও ফুটেজের সাহায্যকারী হিসেবে ছিলেন গিনেস রেকর্ডের বিচারক প্রভিন প্যাটেল। ইংরেজিতে লেখা মূল লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে কিপ রিডিং…

মাথার ওপর মানুষ চড়িয়ে সিড়ি আরোহনের বিশ্ব রেকর্ড

ভিয়েতনামের সার্কাস পার্টির মানিকজোড় দুই সহোদর ভাই অনন্য এক বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন। এই সার্কাস মানিকজোড় একজনের মাথায় অপরজনের মাথা মিলেয়ে ফ্রান্সের জিরোনা নামক স্থানের একটি দীর্ঘ সিড়ি অস্বাভাবিক কসরত প্রদর্শন করে আরোহন করেন।



এরইমধ্যে তারা গিনেস বুক ওয়ার্ল্ডে রেকর্ডভুক্ত হয়েছেন। একজনের মাথার সঙ্গে অপরজনের মাথাকে সমীকরণ করে সেন্ট ম্যারি ক্যাথিড্রালের ৯০টি সিড়ি পার করেন এই  সার্কাস মানিকজোড়। জ্যাং কোয়াক নিপ এবং জ্যাং কোয়াক-এর সমন্বিত শারীরিক কসরত সবাইকে বেশ অবাক করেছে বৈকি!

নিজেদের স্থায়ী শক্তি প্রদর্শনের মাধ্যমে তারা এ কসরত করেছেন। বিশ্বে তারাই একমাত্র একজনের মাথার ওপর অন্যজনের মাথা রেখে ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থায় সর্বাধিক ৯০টি সিড়ি আরোহন করেছেন ।সিড়ির নিচ থেকে ওপরে যেতে এই মানিকজোড় মাত্র ৫২ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন। উল্লেখ্য, জনপ্রিয় ফ্যান্টাসি মহাকাব্য খেলা‘গেমস অফ থ্রোনস’-এর অনুকরণে এটা করা হয়েছে।

কিপ রিডিং…

গো টু টপ